পাতা:অমরনাথ (কৃষ্ণচন্দ্র রায় চৌধুরী).pdf/২৭৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অমরনাথ । *や● যমদূতের মত দাড়িয়ে পাহার দিচ্চে। আমি ওখানে গেলেই যেন মারা পোড়ধ। না ও সব কিছু না । এসব কম্মে সাহস না কোললে হয় না । ( প্রকাশ্য) তবে তুমি ভাল কথার কেউ না । আচ্ছা ! ( লম্ফ দিয়া রঙ্গভূমে কমলবাসিনীর সন্মুখে উপস্থিত মাত্রেই কমলবাসিনী সত্বর গাত্রোথান করিয়া অস্থিরিক বলের সহিত এক ধাক্কা দিয়া নিক্ষেপ করিয়া নক্ষত্রগতি এক বৃহৎ ছুরিকা লইয়া পুনরায় সেই স্থানে অবস্থিতি ) উন্থ হু হু হু হু হু হু হু, গেচিরে গেচিরে গেচিরে! আমার মাথাট। এই চৌকাটে লেগে একেবারে ভেঙ্গে চে. চিল্লি হয়েচে । রাঙ্কুশী! ডাইনী ! পিচিশী ! খুন কোল্লি একেবারে ? r কমল । তুমি এখনও বেঁচে আছ ? শীঘ্ৰ পালাও, নইলে এই ছুরি তোমার ঐ পাষ গু হৃদয়ের রক্তে ডুববে । তুমি এই সাহস করেছিলে যে আমি অনাথিনী সহায়-শক্তি-বিহীন স্ত্রীলোক। তোর এ বোধ নেই যে সতীর সতীত্ব জগদীশ্বরের নিয়মের ন্যtয় অটল ? ‘. ষাঁড়ে। তা আমি তো— কমল । আবার কথা কোস যে ? শীঘ্র দূর হ, নৈলে এই ছুরিতে তোমার মৃত্যু । র্যাড়ে। আরে তোর আটক নেই তা । তুই সব পারিস। ও বাপু ! মেয়ে মানুষের গায় এমন দোস্থির মতন জোর তো দেখিনি! এই যাচ্ছি যাচ্ছি।—আবার তুই অমন কোরে ছুরি ওঁচাস কেন ? 幾

  • [ প্রস্থান । কমল । হা প্রাণনাথ! তুমি কোথায় এ সময় ! তুমি স্বৰ্গ হতে যদি দাসীর দশ দেখতে পেতে, তবে স্বৰ্গ ত্যাগ কোরেও আসতে। প্ৰাণেশ্বর ! আমাকে এত আশা ভরসা দিয়ে বোলে কয়ে রেখে শেষ এক কালীন পরিত্যাগ কোরে গেলে । আর এই নীচ, এই জঘন্য, এই মনুষ্যকুলের