পাতা:অমরনাথ (কৃষ্ণচন্দ্র রায় চৌধুরী).pdf/৩৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ఫిబ్రీ অমরনাথ । গণেশ। এই যে, দুজনেই এই যে । ( ডাক্তার এবং অমৃতলাল বাবুর প্রবেশ ) অমৃত। বিলক্ষণ ! আপনার আমাদের ফেলে চোলে এলেন! গণেশ । তা কি করি । একে তো লোকের ঠেলাঠেলিতে দাঁড়ান বায় না, আবার যত সন্ধে হোতে লাগল ততই—তোমার ওন্নাম কি—লোক ভাংতে লাগল, আর হট হট হোতে লাগল। ঐ গোলে আপনাদেব দেখতে পেলেম না । কাজেই চোলে আসতে হল । তা আপনারা এতক্ষণ কোথা ছিলেন ? (ঈষৎ হাস্য) শীতল । আপনারা যেখানে ছিলেন তা আমরা অনেক ক্ষণ বুঝিচি } { ঈষৎ হাস্যু ) অমৃত। তোমার যেমন বিদে, কোথায় ছিলেম আমরা ? শীতল । সে কথায় আর কাজ নেই। এখন আজকের জিনিসটে কেমন তা বলুন । বোধ করি আজ এই পরবের গোলে দেদার জল মিশিয়েছে। কোথায় ছিলেন তা আবার চাক্‌চেন কেন ?—বাৰু তা আগেই বোলে রেখেচেন । অমৃত । বাবু এমন কথা কখনই বোলবেন না। তোমার মত অত বিদে বাবুর নেই। বাৰু বেশ জানেন যে সেখানে আজকে এই ছোট লোকের গোলের মধ্যে আবে ভদ্রলোক যেতে পারে না । তামাম দিনের মধ্যে যদি এক গ্লাসও না খাই,তবু না । শীতল। (স্বগত) এই, বাবুর নামটি হয়েছে, আর যেন অমনি কচ্ছপের মুখে চেলা পোড়েচে । একটু মদের জন্যে যখন এই সব লোক খোসামোদ করে, তখন আমি আর কোথায় আছি !! গণেশ। আমাদের বিয়ে-পাগল ঠাকুর যে এখনও উদয় হোচ্ছেন না। অমৃত। কোই, তাকে তো সঙের ওখানেও দেখিনি। সে বোধ হয়