পাতা:অমরনাথ (কৃষ্ণচন্দ্র রায় চৌধুরী).pdf/৭৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


● অমরনাথ । সুসার। মহাশয় আমাৰ কিঞ্চিং বিষয় আছে, তৎসম্বন্ধে কিছু গোলযোগ আছে। সেইটে শেষ না কোরে বাড়ী থেকে যাওয়া হোচ্ছে না তা আপনাদের সকল সদালোচন! আব মহৎকার্য্যের কথা শুনে আপনাদের সঙ্গে অনেক দিন পৰ্য্যস্ত আলাপ করবার ইচ্ছা ছিল ; তাই আপনাদের সঙ্গে আলাপ করা, আর মাতুল অালয়ে বহুকাল আসা হয় নি, সেখানেও এসে দেখে শুনে যাওয়া । এই উভয় প্রয়োজনে এখানে আসা । মতি। আছাদের বিষয়! আপনার মাতুল কে ? সুসাব । উত্তর পাড়ার গগনচন্দ্র মুখ্যোপাধ্যায় মহাশয় । মতি। স্থা, তারা অতি প্রধান লোক। তা আপনি যে বোলছিলেন আমাদের মহংকাৰ্য্যের কথা শুনেছেন, আমাদের মহৎকার্য্যের ইচ্ছ। বটে কিন্তু ক্ষমতা নেই। দুঃখের বিষয় যে এই জগতে এমন সৌভাগ্যবান লোকের সংখ্যা অতি অপ, যাতে উত্তম কাৰ্য্যের ইচ্ছা এবং ক্ষমতা উভয সংযোগ আছে। র্যার ইচ্ছা আছে তার ক্ষমতা নেই, যার ক্ষমতা আছে তবে ইচ্ছা নেই। ভুসার। ই মহাশয় তা বটে। তবে কথা এই যে ইচ্ছাথেকে ক্ষমতা না থাক। বরং ভাল, কিন্তু ক্ষমতা থেকে ইচ্ছ না থাকা ভারি বিড়ম্বন । কারণ র্যার প্রকৃত ইচ্ছা আছে, তার অবশ্য যত্ন আছে। পরম্ভ কাৰ্য্য-সামান্যেরই রীতি এই যে উপযুক্ত যত্ন কোরলে প্রায়ই সিদ্ধি হয়। তবে যদি কোন বিষযেতে না হয়,তথাচ একটা প্রবোধের পথ থাকে যে আমার যতদূর সাধ্য তা কোলেম। কিন্তু র্যার ক্ষমতা আছে ইচ্ছা নেই, তার আর কিছুই বল্বার কথা নেই। তিনি অপুৰ্ব্ব হস্তভাগ্য। আবার সৎকর্মের যত্ন যদি বিফলও হয়, তথাচ সেই বিফলতাতেই এক মহত্ত্ব প্রকাশ আছে। মতি। আপনি যা বোল্‌লেম, সে স্বরূপ বটে। কিন্তু সৎকর্মের ষত্ব