পাতা:অমৃত গ্রন্থাবলী প্রথম ভাগ.pdf/২০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


fর নাই । কি কৌস্তুভ-লাঞ্ছিত রত্ব ছরিঞ্জের বক্ষে শোভা পাচ্ছে, কোন কমলার মিলা তার হৃদয়-সাগর অলোকিত করছে, ক ত্রিলোকস্থলর্ড কি অসীম প্রেমের রাজ্য ঙ্গ লয়ে সে তোমার ছাঁর মৃত্তিকার থিবী ত্যাগ ক’রে যাচ্ছে,—একবার দেখে \g যত কিছু আছে মুখ এই ধরাতলে, সকল সুখের সুখ ভাৰ্য্যা ভাল হলে । স্নেহহীন কুবচন নারী ভাগ্যে যার, জীবনে নরক-জ্বালা সদা ভোগ তার । শৈব্যা। মহারাজ ! যাত্রার কি বিলম্ব आi८छ् ? রাজা। বিলম্ব !—ন না প্রিয়ে, পরগৃহ ত শীঘ্র ত্যাগ করা যায়, ততই শ্ৰেয়: । চল, s রাজবেশভূষায়ও আমার আর অধিকার बैंहेि, এগুলিও ত্যাগ ক’রে যেতে হবে । শৈব্যা। বুঝেছি—মহারাজ বুঝেছি, এ ঋষ্ট্রীলঙ্কারও এখন আমার নয় । রাজা । প্রিয়তমে ! রাজরাঞ্জেশ্বরি ? সর্বস্ব আমার ! কেমন ক’রে তোমায় আমি ভূষণহীন দেখবো ? শৈব্য। একগাছি অমূল্য রত্নছার আজ থেকে আমি দিবানিশি গলায় পরে থাকবো ; এস মহারাজ, পরিয়ে দাও । ( রাজার হস্ত লইয়া নিজ গলদেশে বেষ্টন ) রাজা । দুঃখের এত পুরস্কার । জগদীশ্বর ! স্নহের পরিজাত দেখাবার জন্য, সহানুভূতির অমৃত পান করাবার জন্যই কি তুমি দুঃখের স্বজন করেছ ? শৈব্যা। নখ ! চল রোহিতাশ্বকে সঙ্গে নিতে হবে । রাজা । ঐ—ঐ অার এক কাটা। শৈব্য । আমার কোলছাড়া করে বাছাকে সিংহাসনে রাখলেও তো আমার মন । &> মানবে না। মহারাজ! যেখানে আমার পতিপুত্র, সেইখানেই আমার রাজ্য। , রাজা । বিশ্বামিত্র । অযোধ্যা রহিল,রাজলক্ষ্মী হরিশ্চন্দ্রের সঙ্গে চললো। উভয়ের প্রস্থান । ( বিশ্বামিত্র, মন্ত্রী, কমন্দক ও অমাত্যগণ } বিশ্বা। তোমাদের কারও কিছু জাপঞ্জি स्रi८छ् ? - মন্ত্রী। আমরা পুরুষাকুকুমে স্থৰ্য্যবংশের অন্নে প্রতিপালিত। মহারাঞ্জ হরিশ্চন্দ্ৰ আপনাকে সৰ্ব্বস্ব দান করেছেন, আমি আপনাকে মহারাজের সম্পত্তিমধ্যে গণ্য করে থাকি । রাজর্ষি ! বিনা বৃত্তিতে আপনি আমার সেবা পাবেন । অমাত্যগণ । রাজর্ষি! মন্ত্রী মহাশয় আমাদের সকলেরই মনোভাব জ্ঞাত করেছেন । । বিশ্ব । হ্যা হ্যা বুঝেছি, যে হরিশ্চন্দ্র এক কথায় সমস্ত দান করতে পারে, তা’র কৰ্ম্মচারী ছিলে তো ? এখন ছ'পুরুষ বেতন না নিলেও পায়ের উপর পা দিয়ে চলবে। ১ম অ । দ্বিজবর । অপরাধ মার্জন করবেন, স্বাৰ্থত্যাগ কেবল তপোবনের চতুঃসীমায় আবদ্ধ নয়। দেখুন গিয়ে, মন্ত্রী-পুত্র প্রতিভাকুমার পিতৃ-মাজার স্বহস্তে ভাগুtয় খলে দিয়েছেন, বোধ হচ্ছে, এতক্ষণ কোষাগাঁর পূত হ’ল। , , কাম । জ্য-রাজকোষ ?