পাতা:অশনি সংকেত - বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/১২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


もf অশনি-সংকেত --বেশি দেরি কোরো না-এখেনে নাকি বনো শওর বেরোয় সন্দের পর । আমার বন্ড ভয় করে বাপ গঙ্গাচরণ ছায়া-ভরা বিকেলে মাঠের রাস্তা বেয়ে গন্তব্যস্থানে যেতে যেতে কলপনাচক্ষে তার ভবিষ্যৎ গহস্থালীর ছবি আকিছিল। বেশ লাগে ভাবতে। এই সব মাঠে ভাল চাষের জমি পাওয়া যায়, যদি কিছ জমি তাডুংগাড়ার বাঁড়িয্যে জমিদারের কাছ থেকে বন্দোবস্ত নেওয়ার যোগাযোগ ঘটে, যদি বিশ্ববাস মশায়াকে বলে কয়ে একখানা লাঙল করা যায়। তবে ভাত-কাপড়ের ভাবনা দর হবে সংসারের। অনেকদিন থেকে সে-জিনিসের ভাবনাটা চলে আসচে । হয়তো ভগবান ঠিক জায়গাতেই নিয়ে এসে ফেলেচেন এতদিনে । বিশ্ববাস মশায়ও যথেস্ট আগ্রহ দেখালেন গঙ্গাচরণকে এ-গ্রামে বসাবার জন্যে । বললেনআপনারা আমাদের মাথার মণি-আমি আপনাকে সব বন্দোবস্ত করে দিচ্ছি । -একটা পাঠশালার বন্দোবস্তু আপনি করে দিন --সব হয়ে যাবে- আপাতত যাতে আপনার চলে তার ব্যবস্থা করতে হবে তো ? বাড়ীতে খেতে ক’জন ? -আমার সত্ৰী ও দটি ছেলে বিশ্ববাস মশায় মনে মনে হিসেব করে বললেন-ধরনে মাসে দশ আড়ি ধান-পনেরো কাঠা চাল হলে আপনার মােস চলে যাবে।--কি বলেন ? -হ্যাঁ, তাই ধরন -আর সংসারের ডালডুল, তেল নন-ও হয়ে যাবে। পরতগিরিটাও ধরন -সে তো ঠিক করেই রেখেচি-সংস্কৃত জিনিসটা কষ্ট করে শিখতে হয়েচে-ও বড় শক্ত জিনিস, সকলের মখ দিয়ে কি বেরোয় ? এই শােনন তবে-ধ্যায়ন্নিত্যং রজতাগিরিনিভং চারচন্দ্রাবতংস;ং-ইয়ে-পরশমগবারা ভীতিহন্ত-ইয়ে রত্নকলপজৰলাং ཡང་ཁམས་ཤོ13 বাঃ —এটা কি বলন তো ? —কি করে জানবো বলনা-আমরা হচ্ছি চাষীবাসী গোবস্তু, অ্যাংক অস্ক পযন্ত আমাদের বিদ্যে । আর শিশবোধক ৷ পড়েচেন শিশবোধক ? পাখী সব করে রব রাতি পোহাইল কাননে কুসম কলি সকলি ফুটিল দেখােন কদিন আগে পড়েচি, ভুলি নি। সব মনে আছে। গঙ্গাচরণ উৎসাহের সঙ্গে ঘাড় নেড়ে বললে-বেশ-বেশ বিশ্ববাস মশায় হটশনে বললেন-বাবা মারা গেলেন অলপ বয়সে। সংসারে দটি DBBDBD BDDYeieuDuuD D BDB DBDBD DBDB DDSDDB DBDB DBB BB DBBBD DBD DBBBB میس-}$3Sq -সে কোথায় ? --চিত্রাঙ্গাপাের, ডাবতলীর কাছে। ডাবতলীর গরর হাট ও-দিগরে নামকরা। অত বড় গরীর হাট এ জেলায় নেই।