পাতা:অশনি সংকেত - বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/৫৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


R অশনি-সংকেত দাওয়ায় বসে তামাক খাচ্চে, ওকে দেখে বললে--পশ্চিন্ডত মশাই, ওতে কি ? চ, नाकि ? -शाँ ! -কোথায় পেলেন ? -সে যা কািট তা আর বোলো না । এক বাড়ীর কাছ থেকে সামান্য কিছ. আদায় করে। তাও আগােনা দূর । * -কই দেখি দেখি ? সনাতন ঘোেষ নেমে এসে ওর হাতের পটুলিটাে নিজের হাতে নিয়ে পটুলি নিজেই খ চাল দেখতে লাগলো। ওর মািখটা যেন কেমন হয়ে গেল। চালের দানা পরীক্ষা করা: করতে বললে-বড় মোটা । কওঁ দর নিলে ? একটা কথা বলবো পণ্ডিত মশাই ? --কি ? --দাম আনি যা হয় দিসি) । আমায় অধোকটা ঢাল দিয়ে যান। দিতেই হবে । দ’দি না খেয়ে আছে সবাই । মেয়েকে “বশ্যুরবাড়ীর থেকে এনে এখন মহা মশাকিল, সে বেচার পেটে আজ দশদিন লক্ষীর দানা যায় নি-কত চেষ্টা করেও চাল পাই নি সনাতন ঘোষের অবস্থা খারাপ নয়, বাড়ীতে অনেকগলো গর, দধি থেকে ছানা কাটি নরহরিপরের ময়রাদের দোকানে যোগান দেয়-এই তার ব্যবসা । গঙ্গাচরণ ইতিপ.ে সনাতনের বাড়ী থেকে দ-এক খালি টাটকা ছানা নিয়েও গিয়েচে । তার আজ এই দশ কিন্তু চাল মাত্র সে নিয়োচে তিনি কাঠা । আর কোথাও চাল পাওয়া যাচ্চে না । এ চ দিলে তার স্ত্রী-পত্ৰ অনাহারে থাকবে দািদন পরে । চাল দেওয়ার ইচ্ছে তার মোটেই নেইএদিকে সনাতন মোক্ষম ধরেচে চালের পটুলি, তার হাত থেকে চােল নিতান্তই ছিনিয়ে নি। হয় তাহলে । কিংবা ঝগড়া করতে হয় । সনাতন ততক্ষণে কাকে ডেকে বললে-ওরে একটা ধামা নিয়ে আয় তো বাড়ীর ম.ে থেকে ? একটা কাঠাও নিয়ে আয় সনাতন নিজের হাতে এক কাঠা চাল যখন মেপে ঢেলে নিয়েচে, তখন গঙ্গাচরণ মিনী সচক ভদ্রতার সরে বললে--আর না। সনাতন, আর নিও না -আর আধু কাঠা-না বাপ, আমি আর দিতে পারবো না । বাড়ীতে চাল বাড়ন্ত-বাবালে না ? সনাতনের নীতিটি বললে-দাদামশাই, ও’র চাল আর নিও না, দিয়ে দাও । , সনাতন মািখ খি’চিয়ে বলে উঠলো-তোদের জন্য বাপ খেটে মরি, নিজের জন্য কিলে ভাবনা । একটা পেট যে করে হোক চলে যাবেই । রইল পড়ে চাল, যা বঝিাস করগে যা। রাগ না লক্ষী । গঙ্গাচরণ বিনা চক্ষলক্ষজায় সমস্ত চাল উঠিয়ে নিয়ে চলে এল। বা এসে দেখলে অনঙ্গ-বে। ভাত চড়িয়ে ওলি কুটতে বসেচে রান্নাঘরের দাওয়ায় । স্বামীকে দে। বললে-ওগো শোনো, আমি এক কাজ করিচি । সেদিন সেই বোস্টম প্রভাতী সরে গ করছিল, মনে আছে ? আজি এসেছিল, কি সম্পদর গান যে গায় ! --KF KG NET ? --সেই যে বলে--"উঠ গো উঠা নম্পদরাণী কত নিদ্রা যাও গো'--বেশী গলা-লক্ষবা মা ফস মত বোস্টমটি