পাতা:অশনি সংকেত - বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/৬১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অশনি-সংকেত বিশ্ববাস মশায় বললেন-আপাতোক যাচ্চি গঙ্গানন্দ পাের, আমার বেশিরবাড়ী । এ গাঁয়ে আর থাকবো না। এ ডাকাতের দেশ। সামান্য দািচর মণ ধান চাল কে না ঘরে রাখে। বলনে তো পণ্ডিত মশায়। তার জন্যে মানষি খােন ? আজি ফসকে গিয়েচে, কাল যে খােন করবে না। তার ঠিক কি ? না, এ দেশের খারে নমস্কার বাবা । --আপনার জমিজমা পাকুর এ সবের কি ব্যবস্থা হবে ? -আমার ভাগ্নে দােগাপদ মাঝে মাঝে আসবে যাবে। সে দেখােশানো করবে। আমি আর এমখে হচ্চি নে কখনো । ঢের হয়েচে । ভাল কথা, একটা ভাল দিন দেখে দেবেন। ८उा यादान्न ? বধবার সকালবেলা বিশ্ববাস মশায় সত্যসত্যই জিনিসপত্র সমেত নতুন গাঁ কােপালী-পাড়ার বাস উঠিয়ে চলে গেলেন । অনঙ্গ-বৌ শনে বললে-এই বিপদের দিনে তবও এই একটা ভরসা ছিল । কোথাও চাল না পাওয়া যায়, ওখানে তব পাওয়া যেতো। এবার গাঁয়ের খর্ব দদশা হবে । একসােনা ধানচাল কারো ঘরে রইল না। আর । ভয়ে পড়েই লোকটা চলে গেল । শ্রাবণ মাসের শেষ । বেড়ায় বেড়ায় তিৎপল্লার ফুল ফুটেচে। কোঁচ বকের লম্ববা সারি নদীর ওপর দিয়ে উড়ে যায় এপার থেকে ওপারের দিকে । অনঙ্গ-বোঁ নদীর ঘাটে জল তুলতে গিয়েচে । ভুষণ ঘোষের বেী এক জায়গায় হাবড় কাদার ওপর ঝাঁকে পড়ে কি করাচে। অনঙ্গ-বেীকে দেখে সে যেন একটু সন্দুকুচিত হয়ে গেল । যেন এ অবস্থায় কারো সঙ্গে না দেখা হওয়াই ভালো ছিল, ভাবটা এমন । অনঙ্গ-বেী কৌতুহলের সঙ্গে বললে--কি হচ্ছে গো গয়লা-দিদি ? ভূষণ ঘোষের বোয়ের বয়স বেশী নয়, অনঙ্গ-বৌয়ের সমবয়সী কিংবা দ-এক বছরের বড় হতেও পারে । অচিলে কি একটা ঢেকে সলঙ্গজভাবে বললে-কিছ না ভাই --কিছ না। তবে ওখানে কি হচ্চে তোমার মরণ ? -4ਸ --তবও ? —সযনি শাক তুলচি বলেই হঠাৎ সলঙ্কজ হাসি হেসে অাঁচল দেখিয়ে বললে-মিথ্যে কথা বলবো না বামনের NG PROR I qš из- 4V অনঙ্গ-বেী বিস্ময়ের সঙ্গে বললে-ও কি হবে ? হাঁস আছে বঝি ? গয়লা-খোঁয়ের অচিলে একরাশ কাদামাখা গেড়ি-গগেলি। সে বললে-হসি নয়। ভাই, আমরাই খাবো । -ও কি করে খায় ? -এমনি ! শাঁস বের করে ঝাল-চচড়ি হবে । -if p -অনেকে খায়, তুমি জানো না! আমরা শখ করে খাই ভাই । -কি করে রাঁধে আমাকে বলে দিও তো ?