পাতা:অষ্টাঙ্গ হৃদয় - বাগ্‌ভট.pdf/১৩৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


وسيا সূত্ৰস্থান। ت. 1 98 أسبوع বিরুক্ষণের সম্যক কৃতাতিকৃত লক্ষণ। সম্যক্ৰকৃত বিরুক্ষণের ও অতিকৃত বিরুক্ষণের লক্ষণ, সম্যক কৃত লঙ্ঘনের ও অতি কৃত লঙ্ঘনের লক্ষণের ন্যায় জানিবে। অর্থাৎ সম্যক কৃত লক্ষনের বিমলেন্দ্ৰিয়তা প্রভৃতি যে সকল লক্ষণ, তাহাই সম্যক্রুত বিরুক্ষণের লক্ষণ এবং অতিক্ত লঙ্ঘনের কার্শ্যাদি যে সকল লক্ষণ, অতিকৃত বিরুক্ষণেরও স্নেই লক্ষণু জানিবে৷৷ ৩৭ • * স্নেহপানান্তে স্নিগ্ধ ব্যক্তিকে স্নিগ্ধ দ্রব ও উষ্ণ জাঙ্গলমাংসারস ভোজন করাইয়া স্বেদ প্রদান করিবে। স্বেদ গ্ৰহঁণের তিন দিন পরে বিরোচন দিবে। আর যদি স্নেহপানের পর বমনই উপযুক্ত বোধ হয়, তাহা হইলে উক্তরূপ ভোজন করাইয়া স্বেদ দিবে এবং স্বেদগ্রহণের একদিন পরে কফজনক ক্ষীর মৎস্তাদি দ্রব্য সেবন দ্বারা কাফকে উৎক্লেশিত করিয়া বামন দিবে।॥ ৩৮ মাংসল মেদী শ্লেষ্মবহুল বিষম্যাগ্নি ও মেহাভ্যন্ত• ব্যক্তিদিগকে শোধনাৰ্থ স্নেহপ্ৰয়োগ করিতে হইলে প্রথমে রুক্ষ ক্রিয়া করিয়া তৎপরে স্নেহপ্রয়োগ করিতে হুইবে এবং স্নেহপ্ৰয়োগের পর তাহদের শোধনকাৰ্য্য করিবে । এই নিয়মে মেহ ক্রিয়া করিলে মেহব্যাপত্তি ঘটে না । অপিচ। সেই পীত মোহ অসাত্ম্যতা প্ৰাপ্ত হইয়া বাতাদি দোষ ও পুরীষদিকে নিঃসারিত করিতে সমর্থ হয়। দীর্ঘকাল সেবনে মোহ সাত্ম্য হইলে তাহা মলাদি নিঃসরণ করিতে পারে না। কিন্তু উক্ত নিয়মে মোহ পান করিলে তাহা অসাত্ম্যতা প্ৰাপ্ত হওয়ায় মলাদিকে সহজে নিঃসারিত করিয়া থাকে ৷৷ ৩৯l8 ০ বালক বাঁ বৃদ্ধ প্রভৃতিকে এবং যাহারা স্নেহপান কালে পরিহার্ঘ্য (শীতল জল প্রভৃতি), পরিত্যাগে অসমর্থ "তাহাদিগকে অনুদ্বেগকর নিম্নলিখিত স্নান্তস্নৈহন যোগ সমূহ প্রয়োগ করিবে ॥ ৪১০ O • প্রভূত মাংসারস, স্নেহভর্জিত পেয়া, স্নেহ (ঘূতাদি ) ও ফাণিত (গুডুবিশেষ) যুক্ত তিল চূৰ্ণ, কৃশরা ( খিচুড়ি), উষ্ণ ও স্বতমিশ্ৰিত ক্ষীরপেয়া সগুডু দৃদ্ধিসর এবং পঞ্চপ্রস্থতিকা পেয়া (ঘূত, তৈল, বসা, মজ্জা ও তণ্ডুল প্ৰত্যেক। ১ প্রস্থত অর্থাৎ ১৬ তোলা) সমুদায়ে এই সাতপ্রকার মেইন ৰােগ, সন্তঃস্নিগ্ধতাকারক। লবণবহুল ঘূতাদিও সন্তঃস্নেহন। কারণ লবণরস শ্ৰোতঃসমূহের স্রাবক, সুহ্মস্রোতেগামী, অরুক্ষ, উষ্ণ ও ব্যবান্ধী (ফাই সমস্ত দেহে ব্যাপ্ত হইয়া পরে পরিপাক পায় তঁহাকে बादी कश् । 5n 8-88 Ο কুণ্ঠ শোখ ও, এঁদেহ-রৈাগী গ্রেহনযোগ্য, হইলেও তাহাদিগকে গুড় আনুপমাংস দুগ্ধ তিল মাষকলায় সুরা ও দধি মোহনাৰ্থপ্ৰদান করিবে না৷ ৪৫* , O ত্রিফল পিপুল, হরীতকী ও গুগগুলু প্ৰভৃতি দ্ৰব্যদ্বারা বিপাচিত তত্তদাধিকারোক্ত অবিকারি মেহ সকল উক্ত কুষ্ঠাদি রোগে মোহনাৰ্থ প্রয়োগ করিবে ॥ ৪৬ . যাহারা নানাবিধ রোগে ক্ষী*দেহ, তাহাদিগকে অগ্নিস্ট্রপক ও দেহের পুষ্টিকর স্নেহ সমূহ काराने কৱিবে । ৪৭ নিত্য স্নেহসেবনশীল ব্যক্তির জঠরাগ্নি প্ৰদীপ্ত, কোষ্ঠ বিশুদ্ধ, রুশরাক্তাদি ধাতুসমূহ বৰ্দ্ধিত, ইন্দ্রিরসমূহ স্বস্থ এবং জরা অল্প হয়। দেহসেবী ব্যক্তি শতযুঃ ও বলবৰ্ণযুক্ত হইয়া থাকে ॥ ৪৮ অষ্টাঙ্গাহৃদয়ে সুত্ৰস্থানে ষোড়শ অধ্যায় সমাপ্ত।