পাতা:অষ্টাঙ্গ হৃদয় - বাগ্‌ভট.pdf/১৪৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


७३ অষ্টাঙ্গাহৃদয় । א שלt &)3 হীনবেগবিশিষ্ট ব্যক্তি পিপুল আমলকী শ্বেতসর্ষপ ও লবণ জল সেবন করিয়া বারংবার বমি করিবে। বামন ঔষধ সেবন দ্বারা যদি সম্যক বমনবেগ উপস্থিত না হয় কিংবা মধ্যে মধ্যে এক একবার বমন বেগ হয় অথবা কেবল মাত্র দোষাদি রহিত ঔষধের বমন হুয়, তাহা হইলে তাহাকে অযৌগ বল'। অযোগ হেতু নিষ্ঠীরুন, কাণ্ডু, কোঠ ও জরাদি রোগ জন্মে ॥২৪৷৷২৫ বমনের সম্যক যোগ হইলে কফ পিত্ত ও বায়ু বিবন্ধ রহিত হইয়া ক্রমশঃ নিৰ্গত হইয়া থাকে। আর অতিযোগ হইলে ফোন চন্দ্রক ও রক্তযুক্ত বমন হয় । জীবশোণিতের নির্গম হেতু রোগির ক্ষীণতা, দাহ, কণ্ঠশোধ, অন্ধকার দর্শন, ভ্রম ও দারুণ বায়ুরোগ জন্মে এবং মৃত্যু ঘটিয়া ♥iርኛ በቅ©lSፃ সম্যক যোগদ্বারা বমিত ব্যক্তিকে ক্ষণকাল শীতল বায়ু সেবনাদি দ্বারা আশ্বস্ত করিয়া পুৰ্ব্বোক্ত (স্নিগ্ধ মধ্য ও তীক্ষাভেদে) ত্ৰিবিধ ধূর্মের অন্যতম একপ্রকার ধূমপান করাইবে। অনন্তর স্নেহপানবিধি সমূহ (উষ্ণোদকোপচার, ব্ৰহ্মচারী ইত্যাদি) পালন করিতে উপদেশ দিবে।॥ ২৮ অতঃপর বমিত রোগী পূৰ্ব্বাঙ্কে বা সায়াহে ক্ষুধাৰ্ত্ত হইলে তাহাকে ঈষদুষ্ণ জলে স্নান করাইয়া রক্তশালি তণ্ডুলের অন্ন পেয়াদিক্ৰমে ভোজন করাইবে । -- পেয়াদিক্রম কথিত হইতেছে-প্রধান মধ্য ও হীন শুদ্ধিতে শুদ্ধ ব্যক্তি তিন ভোজনকাল, দুই ভোজনকাল ও এক ভোজনকাল পেয়া, বিলোপী, অসংস্কৃত ও সংস্কৃত যুষ এবং মাংসারস ভোজন করিনা। অর্থাৎ প্রধান শোধনে শুদ্ধব্যক্তি প্রথমুদিন দুই ভোজনকালে হুইবাবু, পেয়া পান করবে। দ্বিতীয় দিন এক ভোজনকালে, পেয়া এবং বৈকালে বিলোপী, তৃতীয় দিন দুইবারই বিলোপী, চতুর্থ দিবসে দুই ভোজনকালে অসংস্কৃত (শুষ্ঠালবণাদি) রহিত মুগাদি যুহ, পঞ্চম দিবসে প্ৰথম ভৈাজনকালে সংস্কৃত ফুষ, ও দ্বিতীয় ভোজনকালে অভ্যাংস্কৃত মাংসারস ; ষষ্ঠদিনে একবার অসংস্কৃত মাংসরস ও এক্লাবার সুংস্কৃত মাংসারস ভোজন করিব। * পরে সপ্তম দিবসে স্বাভাবিক নিয়মে ক্ৰমশঃ ভোজন করবে। প্রধান শুদ্ধিতে শুদ্ধব্যক্তিকে যেমন তিনবার পেয়া তিনবার বিলোপী এই নিয়মে পথ্য দেওয়া যায়, সেইরূপ মধ্যগুদ্ধিতে শুদ্ধব্যক্তিকে দুইবার পেয়া দুইবার বিলোপী এই নিয়মে দুই, অল্পকাল এবং হীনগুদ্ধিতে শুদ্ধব্যক্তিকে একবার পেয়া একবার বিলোপী এই নিয়মে এক অল্পকাল পথ্য প্রদান করিবে৷ ২৯৩০ * તે পেয়াদিক্ৰমে পথ্য দেওয়ার ফল এই—যেমনু বাহিরের অল্প আঁখি,"র্তৃর্ণ গােময় কাষ্ঠখণ্ড দ্বারা ক্ৰমশঃ সন্ধুক্ষ্যমাণ হইয়া মহাৰ স্থির ও সর্বপচ হয়, সেইরূপ বমন বিরোচনাদি দ্বারা শুদ্ধ ব্যক্তির । জঠরাগ্নি পেয়াদিক্ৰমে পথ্যদ্বারা ক্ৰমশঃ উদ্দীপ্যমান হইয়া বৰ্দ্ধিত স্থিত ও সর্বপচ হইয়া থাকে ॥৩১ হীন বৃমনে চারিবার বেগ, মধ্য বমনে ছয়বার "বেগ এবং প্রধান বামনে আটবার বেগ * তন্ত্রজ্ঞগণের অভিপ্রেতি । এইরূপ, হীন বিরোচনে দশ বায়ী, মধ্য বিরোচনে কুড়িবার এবং শ্রেষ্ঠ বিরোচনে ত্রিশবার বেগ অভিলষিত। বিরেচিত বস্তুর পরিমাণ এইরূপ-যথা হীন বিরেচন বস্তুর পরিমাণ এক প্ৰস্থ ; মধ্য “বিরোচনের দুই প্ৰস্থ এবং প্রধান বিরোচনের চারি প্রস্থ। ( বিরোচনের অৰ্দ্ধপরিমিত বমন হইবে।”) ॥ ৩২ পিত্তের অবসান পৰ্যন্ত বমন করিবে' অর্থাৎ পিত্ত নিঃসরণ হইলে বামন ক্রিয়সিম্পন্ন হইয়াছে জানিবে। বিরোচনের অৰ্দ্ধমাত্রায় বমন করিতে হয়। কফান্ত বিরোচন কৰ্ত্তব্য,