পাতা:অষ্টাঙ্গ হৃদয় - বাগ্‌ভট.pdf/২০৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Sqg अः ] শারীরস্থান । • ১৫৩ ব্যবহার করিবে । অনন্তর চরিমাসের পর ( পাঁচু মাস হইতে ) সেই নিজা স্তমূঢ়গৰ্ভ সুগ্ৰী ক্ৰমে ক্ৰমে সুখজনক অন্ন পান আহার বিহারাদি করিবে ॥ ৪১-৪৬ ৷ சி C ) বলা তৈল ) { O তৈল ১ ভাগ, বলামূলের (বেড়েলা মুলের) কাখ ৬ ভাগ, দুগ্ধ ৬ ভাগ, মিলিত যুব কুল কুলখকলাই ও দশমলের কােথ ১ ভাগ, সমুদ্ৰায়ে চৌদভাগ সমৃদ্ধ অগ্নিতে পাক করিলে। কন্ধাৰ্থমেদ, মহামেদ, দেবদারু, মজিষ্ঠা,’কাকোলী, ক্ষীরাকাকোলী, রক্তচন্দন, অনন্তমূল, কুড়, তগরপাদুকা, জীবক, ঋষভক, সৈন্ধবলবণু, কালানুসাৰ্য্যা (উৎপলয়ারিবা অনন্তমূল), শৈলেয়, বচ, অগুরু, পুনর্নবা, অশ্বগন্ধা, শতমূলী, শুক্ল ভূমিকুন্মাণ্ড, যষ্টিমধু, ত্ৰিফলা, বােল, শুলফা, মুগানি, মাষাণি, এলাচ, দারুচিনি”ও তেজপত্র । এই বলা তৈলু সৰ্বপ্রকার বাতারোগ নাশক । ইহা সুতিকারোগ, বালরোগ, মৰ্ম্ম ও অস্থিগত রোগ ও ক্ষতিক্ষীণরোগে প্রশস্ত এবং জর; গুল্ম, গ্ৰহপীড়া, উন্মাদ, মুত্রাঘাত, অস্ত্ৰবুদ্ধি, যোনিকরাগ ও ক্ষয়রোগ শাস্তিকারক। ইহা ধন্বন্তরির আঁভিমত ॥৪৭-৫২ গর্ভপ্রসবােম্মুখ, কালে গর্ভিণীর মৃত্যু হইলে ঘূঢ় তাহার বস্তিদ্বার ও তৎসমীপস্থান অত্যন্ত স্পন্দিত হয়, তাহা হইলে শস্ত্রনিপুণ চিকিৎসক তৎক্ষণাৎ গর্ভিণীর উদর চিরিয়া গৰ্ভস্থ শিশুকে ফাহির কব্লিবে"। ৫৩ 喃 • গৰ্ভস্রাবনিৰ্বারণার্থ গর্ভস্রাবের উপক্রমে নিম্নলিখিত সাতটী যোগ যথাক্রমে সাত মাসে প্রয়োগ করিবে। প্ৰথম মাসে রক্তস্রাব হইলে যষ্টিমধু, সেগুণ বৃক্ষেয় বীজ, মীরকাকোলী ও দেবদারু। দ্বিতীয়মালো—অশ্মন্তকু (অন্নকুচা বা আমুকুল), কৃষ্ণতিল, মঞ্জিঠা ও শতমূলী। তৃতীয় মাসে-পরগাছুক্ষীরকলকোলী, গন্ধপ্রিয়ঙ্গু ও কৃষ্ণশরিবা (খামালত)। চতুর্থ মাসে—অনন্তমূল, শুমালতী, द्रांत्र, বামুনহাটী ؟e যষ্ট্রিবধু * পঞ্চম भ८न-श्डैौ, কণ্টকারী, গামারফল, दफ्रेंफ्रि ক্ষীরিবৃক্ষের বঙ্কল ও শুঙ্গ এবং ঘূত। ষষ্ঠমাসে-চাকুলে, বেড়েলা, সজিনা বীজ, গোন্ধুর ও যষ্টিমধু। সপ্তমমাসে-পানিফল মৃণাল দ্রাহ্মণ কেণ্ডর যষ্টিমধু ও চিনি । অৰ্দ্ধশ্লোকোক্ত এই ৭টি যোগের কথা কস্ক। বাচুর্ণ দুগ্ধ সহ গৰ্জিীকে সেবন করাইবে। ইহাতে রক্তস্রাব বন্ধ হওয়ায় গর্ভ স্থির হইবে ॥৫৪-৫৭ অষ্টমমাসে রক্তক্ষুন্নাব হইলে কয়েত বেল, বেল, বৃহতী, পলতা, ইক্ষু ও কণ্টকারী ইহাদের মূল । দুগ্ধ সহ পাক করিয়া স্ট্রেই 'দুগ্ধ পান করাইবে ॥ ৫৮ নবমীঃ মাসে অনন্তমূল, শ্যামলতা, ক্ষীর কাকোলী ও ধষ্টিমধু ইহাদেবু সহিত এবং দশম মাসে শীর কাকোলী অথৱা যষ্টিমধু, শুঠ ও দেবদারুর সুহিত দুগ্ধ পাক করিয়া তাহা গর্ভিণীকে পান করাইবে ॥ ৫৯ சு () . কুপিত বায়ু কর্তৃক রমণীর ঋতু শ্লোণিত আবদ্ধ হইলে গর্ভুের ন্যায় লক্ষণ সকল প্রকাশ পায়, সেই জন্য অনভিজ্ঞ লোকে তাহাকে গর্ভ বলিয়া থাকে। কটু উষ্ণ ও তীক্ষ বীৰ্য্য“ঔষধ দ্বারা কেবল মাত্র রক্তস্রাব করাইলে জড়বুদ্ধিগণ বলিয়া থাকে যে, গর্ভ ভূতে হরণ কুরিয়াছে। কিন্তু ভূত কর্তৃক শরীরের হরণ রুখন দেখা যায় না। আর যদি তাহারা ওজোভক্ষণ প্রিয় বলিয়া কখন উন্নতিব্বতমৰ্যাদা হইত। তাহা হইলে সেই অব্যবস্থিত ভূতগণ কর্তৃক শিশুর মাতা কখন উপেক্ষিত হইত না। অর্থাৎ তাহু হইলে গর্ভিণীরও মৃত্যু হইত। কিন্তু গর্ভিণীকে উপাচত শরীরই দেখা যায়। ৬০-৬১ अछेचिश्म শারীরস্থানে fā অধ্যায় সমাপ্ত ।