পাতা:অষ্টাঙ্গ হৃদয় - বাগ্‌ভট.pdf/২০৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৩য় অঃ ] শারীরস্থান । · S¢ዓ বাতাদিজুই রক্তবাহিশিরার সাক্ষণ । উক্ত শিরাসমূহের মধ্যে যে সকল শিরা শুষ্ঠাব বা অরুণ বর্ণ, সুহ্ম, ক্ষণে পুর্ণ ও ক্ষশকালে শূন্তবৎ ( বায়ুর চলত্ব হেতু) ও প্রস্তান্দিনী, তাহারা বাতদুষ্ট রক্ত বহন করিয়া থাকে। যে সকল শিরা স্পর্শে উষ্ণ, শীঘ্রবাহিনী, নীল বা পীতবর্ণ, তাহারা পিত্ত দুষ্ট রক্ত এবং যাহারা শ্বেতবর্ণ, স্নিগ্ধ, স্থির ও স্পর্শে শীতলু, সেই সকল শিরাংকফদুষ্ট রক্ত বহন করে। পূর্বোক্ত লক্ষণদ্বয়ের সম্মিলনেশিরা সংস্কৃষ্টিরক্ত যথা-কফিল্মাতদুষ্ট, কফপিত্তদুষ্ট বা বাত পিত্তদুষ্ট এবং ক্রয়ের সম্মিলনে ক্ৰিঘোষদুষ্ট রক্ত বহন করিয়া থাকে। গৃঢ় ( অভ্যন্তরগত ), সমভাবে স্থিত ও লোহিতাভাস বা রোহিণী নামক শিরা সকল বিশুদ্ধ রক্ত বহন করে ॥৩৬-৩৮ চব্বিশটি ধমনী নাভিতে সম্বদ্ধ। চাকার নাভি ( মধ্য স্থান ) যেমন অরক ( চাকার পাখী, নাভির চতুঃপার্শ্ববৰ্ত্তী শলাকার ন্যায় কাষ্ঠ খণ্ড সমূহ) দ্বারা পরিবৃত থাকে সেইরূপ, ধমনীসমূহ দ্বারা নাভিস্থল পরিবেষ্টিত হইয়া আছে। এইসকল্প ধমনী উৰ্দ্ধ ‘অধ; ও তিৰ্য্যক ভাবে গমন করিয়া রসাদিবহনরূপ কাৰ্য্যদ্বারা শরীরকে বৰ্দ্ধিত করে ॥৩৯ ' ' স্রোত্মনিরুপণ । পুরুষের নয়ট স্রোতঃ । যথা নাসাপ্লটদ্বয়, কর্ণদ্বয়, নেত্রদ্বয়, গুইদেশ, মুখ ও লিঙ্গ। স্ত্রীলোকদিগের আরও তিনটী স্রোত অধিক”আছে, যথা-স্তনদ্বন্ধু ও রক্তপথ (এই পথে পুতুি মাসে যোনিতে রক্ত প্ৰবৃত্ত হয় ) । এই গুলি वांछ् 6षङः, ५qङाङिन्न »७ौ ख्रुठःস্রোতঃ আছে। তাহারা বিশেষরূপে জীবনের অধিষ্ঠান। যথা---প্ৰাণবায়ুবাহী, রসবাহী, রক্তবাহী, মাইসবাহী, মেদাবাহী, অস্থিবাহী, মজ্জবাহী, শুক্রবাহী, মুত্রবাহী, পুৱীয়বাঁহী, স্বেদবাহী, জলবাহী ও অন্ত্রবাহী। অহিত আহাঁর বিহারাদি দ্বারা 'এই সকল স্রোতৃঃ দুষ্ট হইলে রোগ উৎপাদন করে এবং বিশুদ্ধ থাকিলে আরোগ্যদায়ক হয় ॥৪০-৪২

  • স্রোতঃসমূহুল-স্বপতুমৰ্ব্ববৃশিষ্ট অর্থাৎ আপেয়দাতুতুল্যবৃর্ণ। রাসবাহিত্মেত: রসধাতুর ন্যায় বৰ্ণবিশিষ্ট, রক্তবাহি স্রোতু রক্তবর্ণ ইত্যাদি। কোন স্রোতঃ গোলাকার, কোন স্রোতঃ স্থূল, কোনটী সুন্ন। সকল স্রোতঃই আকৃতিতে দীর্ঘ ও প্রতানসদৃশ (পত্রিরেখার ন্যায় শাপ প্রশাখা দ্বারা অনেক দূর গুস্থত) ॥৪৩ () যে সকল আহার বা বিহার বায়ু পিত্ত ও শ্লেষ্মগুণের সমান গুণবিশিষ্ট, তাহারা তদোসবহু-শ্রোতঃ সকলেরা প্ৰদূষক, । আর যৈ সকল আহার বা বিহার রসাদি “কোন ধাতু দ্বারা বিরুদ্ধগুণ হয়, তদ্বিারাওঁ তদ্ধাতুবহু স্রোতসমূহের দুগ্ধক হইয়া থাকে ॥৪৪

স্রোতোদুষ্টি লক্ষণ। যে স্রৈাতঃ যে বস্তু বহন করে, সেই স্রোতঃগ্রহইতে সেই বস্তুর অতিপ্ৰবৃত্তি বা অপ্রবৃত্তি ( যেমন মুত্রবাহী স্রোত দুষ্ট হইলে বহুমুত্র বা মূত্ৰাঘাত শূত্ৰীকৃষ্ট্ৰাদি, পুৱীমাবাহিস্রোতোদুষ্টিতে অতিসার বা উদাবাৰ্ত্তবৎ পুস্ত্রীষের অপ্রবৃত্তি, এইরূপ অন্য স্রোত সম্বন্ধেও জানিবে ) শিরা সমূহের গ্ৰন্থি (কুটিলভােব) বা বিমাৰ্গগমন ( নিজের পুথি ত্যাগু করিয়া অন্যপথে গমন) এই গুলি স্রোতোদুষ্টির লক্ষণ ॥ ৪৫ যেমন পদ্ম মৃণালে সুন্ম সুন্ম ছিদ্র সকল সমস্ত মৃণাল ব্যাপ্ত হইয়াথাকে, ভদ্রপ দেহেও স্রোতঃ সকলের সূক্ষ্ম সুন্ম মুখ সমূহ সমস্ত অবয়বে ব্যাপ্ত, হইয়া অবস্থান করে। এই সকল ছিদ্রপথে ভুত্তদব্যের প্রসাদাখ্যারস সমস্ত শরীরে প্রস্থত হইয়া শরীরধারক রসপাতুকে উপচিত করিয়া qt< Ra8W9