পাতা:অষ্টাঙ্গ হৃদয় - বাগ্‌ভট.pdf/২১৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


U veN . ' ris so . აჯა হইলেও সুখায়ুর পাত্র হয় না। অতএব অল্পরোমাদি যুক্ত সাৰ্দ্ধত্ৰিহস্ত শরীর সুখ ও আয়ুর পাত্ৰ ॥ ১১২৷৷১১৩ নিম্নলিখিত লক্ষণবিশিষ্ট শরীর সুখ ও দীর্ঘায়ুত্র আধার; সেই সকল লক্ষণ কথিত হইতেছে। কেশ সমূহ সুচিকুণ মৃদু সুম্ব বহুমূলবিশিষ্ট ও দৃঢ়, ললাট উন্নত শ্লিষ্টশঙ্খ ও অৰ্দ্ধচন্দ্ৰাকৃতি, কৰ্ণ অধো হ্রস্ব উৰ্দ্ধ উন্নত এবং পশ্চাদভাগে বিস্তীর্ণ রম্য ও মাংসল, নেত্ৰ :সুব্যক্ত শুক্লক্ষ্ণমণ্ডল, সুসন্ধি বিশিষ্ট ও ঘনপক্ষ্মযুক্ত, নাসিক উন্নতাগ্ৰ, মহােচ্ছ,াসযুক্ত, পীন সরল ও সম ; ওষ্ঠ রক্তবর্ণ ও O অনুদ্বত্ত (বাহিরে নির্গত না হওয়া ), হনু भशने ও অনুন্নত, মুখবিবর প্রশস্ত, एg चन भिक्षकठि (চকচকে ), শ্লষ্মা ( কোমনুস্পর্শ, কৈহ বলেন-মণিবৎ মন্থণ ), শুক্লবৰ্ণ ও - সমপঙক্তিবিশিষ্ট, জিহবা রক্তবর্ণ আয়ত ও পাতলা, চিবুক মাংসল ও প্রশস্ত, গ্ৰীবা • হ্রস্ব ঘন ( মোটা ঠাস) ও গোলাকৃতি, ব্লন্ধ উন্নত ও পীর, উদর দক্ষিণাধর্ডবিশিষ্ট গুঢ়নাভিযুক্ত ও সম্যক উন্নত, হস্ত পাদ পাতলা লাল ও উন্নতনখুবিশিষ্ট স্নিগ্ধকান্তি তাম্রবর্ণ মাংসল বিস্তীণ এবং দীর্ঘ ও পরস্পর সংশ্লিষ্ট অঙ্গুলি যুক্ত-এই সকল প্রশস্ত লক্ষণ। বিস্তীর্ণ ও গৃঢ় পৃষ্ঠবিংশ (অদৃশ্যমেরুদণ্ডবিশিষ্ট পৃষ্ঠদেশ ), মাংসান্তির্গত ও দৃঢ় মন্ধি সমূহ, ধীর (দৈন্তিরহিত) ও “নাদ (ঘণ্টাদির শব্দবুৎ অনুনাদ ) বিশিষ্ট স্বর, 'চিকণ ও স্থিরকান্তি বৰ্ণ, স্বভাবনিৰ্ম্মল স্থির অতএব বিপৎকালেও অবিকারি মন সৌভাগ্য ও আয়ুর হেতু। উত্তরোত্তর সুক্ষেত্রবিশিষ্ট (যথোক্ত প্ৰমাণ” সুক্ষেত্র শরীর শুভ, যথোক্ত লক্ষণ ললাটাদি অবয়ব বিশিষ্ট সুক্ষেত্র শরীর শুভতর, তাহা হইতেও যথোক্তসত্ত্বলক্ষণগুণান্বিত সুক্ষেত্র শল্পীর শুভতম। )। গর্ভদি হইতে নীরোগ, দৈর্ঘ্য, লৌকিক ব্যবুহার জ্ঞান ও বিজ্ঞান (শাস্ত্রাভ্যাসাদি জনিত জ্ঞান হইতে পরামর্থবােধ পৰ্য্যস্ত বিজ্ঞান, শব্দ ধাচ্য) দ্বারা ক্ৰমশঃ বৰ্দ্ধমান যে দেহ তাহাঁই শুভপ্রদ•৷ ১১৪-১৯২১, O ህቃ উক্ত প্রকারে সর্বগুণুেপেত শরীরে শক্ত বর্ষ। আয়ু ঐশ্বৰ্য্য ও অভিলষিত ভােব সমূহ ব্যবস্থিত থাকৈ ॥১৯২ , AV শরীরের প্রশস্তু লক্ষণ বলিয়া এক্ষণে বল প্রমাণ জ্ঞানার্থ লক্ষণ কথিত হইতেছে। মন্ত্যু শারীরিদিগের, বল প্রমাণ জ্ঞানার্থীত্বৰ্গরক্তাদি হইতে সন্তু পৰ্যন্ত উত্তরোত্তর শ্ৰেষ্ঠ আটী সার উক্ত छ्छेंछ् ।। ९॥ স্বকৃত্যুর, রক্তসার, মাংসসাের, মেদংসার, আঁস্থিসার, মজ্জসিার, শুক্রসার ও সৰ্ব্বসার, এই আটচাঁদরের পর পরটা শ্রেষ্ঠ। এই মিষ্টসারবিশিষ্ট ব্যক্তি অতীব গৌরবান্বিত, সমস্ত আরবন্ধ কাৰ্য্যে আশাবান, সহিষ্ণু, সুধী ও কৰ্ত্তব্যকাৰ্য্যে স্থিরবুদ্ধি কইয়া থাকে ৷ ১২৩৷৷১২৪ সত্বাদিপ্ৰকৃতিক ব্যক্তির কিপ্রকল্প সুখদু:খানুভব হয়, তাহা কথিত হইতেছে। সত্ত্বগুণবান। ব্যক্তি অভিমান ভাগ করিয়া সুখভোগ করেন এবং দৈন্ত আশ্ৰয় করিয়া ई:श डांश कविब्रा থাকেন। রাজস ব্যক্তি তপ্যমান হইয়া “আমিই এরূপ সৰ্ব্বাৎকৃষ্ট সুখে সুখী” এই অভিমানে সুখ ভোগ করে এবং “আমিই এরূপ দুঃখ সহিতে সমর্থ।” এইরূপ অহঙ্কােরাক্রান্ত মনে দুঃখ ভোগ করে। তমোগুণপ্রধান ব্যক্তি অত্যন্ত মুঢ় বলিয়া (“মৃত্তবং সুখ বা দুঃখ ভােগ অনুভব করিতে পারে না। দ্বন্দ্বপ্রকৃতিও সুখানুভব বা দুঃখানুভব করিতে পারে না ॥১২৫ “ ঐক্ষণে প্রধানফলদারি প্রশস্ত লক্ষণ কথিত হইতেছে-দানশীলতা, দয়া (দীনের পালন), সত্য, ব্ৰহ্মচৰ্য্য, কৃতজ্ঞতা, রসায়নক্রিয়া ও মৈত্রী ( সমস্ত প্ৰাণীতে আত্মবৎ ভাবনা ) এইগুলি