পাতা:অহল্যাবাঈ - মণিলাল বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/১০১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


তৃতীয় অঙ্ক 公@ তুমিও পিতৃমাতৃহীনা, আমিও পিতৃমাতৃহীন ; তুমি পরায়ে প্রতিপালিতা, আমিও তাই। তবে আমি উচ্চ দাসত্বের বিনিময়ে মান সম্রামের অধিকারী হয়ে জীবিকা-নিৰ্বাহ করছি, আর তুমি ভিখারিণীর বৃত্তি গ্ৰহণ ক’রে কোন রকমে দিন কাটােচ্ছ-এই যা পার্থক্য ! কিন্তু আমার এ মান সম্রামেব স্থায়িত্ব কতক্ষণ ? এতাে তাসের প্ৰাসাদ ! একটি উষ্ণ নিশ্বাসে চুরমার হয়ে পড়ে যেতে পারে! অভাগিনী তোমার-আমার সম্বন্ধ একই বকম—একই অদৃষ্ট-তন্তুতে আমাদের জীবন-বন্ধন ! কে বলতে পারে, বিধাতার এ সৃষ্টি রহস্যের কারণ কি ! =9 >र्ड>बिक: ভগ্ন অট্টালিকার জীৰ্ণ কক্ষ। কাল-সন্ধ্যা । ( ছিন্নভিন্ন বিশৃঙ্খল বেশে সোমনাথ আসীন। ) সোমনাথ ।-উঃ-পাপীর জীবন কি বিষময় । সে জীবনে শান্তি নেহ ;- ব্ৰহ্মাণ্ডে তার তৃপ্তি নেই। মলহরীরাওকে যখন হত্যা করেছিলেম, তখন মনে যে কামনা ছিল-হৃদয়ে যে ভীষণ প্ৰবৃত্তি ছিল, এখন তার কণামাত্ৰও নেই! তখন ভেবেছিলেম-বৃদ্ধ রাজাকে হত্যা ক’রে, প্ৰতিশোধ নিয়ে বড় তৃপ্তি পাব। কিন্তু এখন সে তৃপ্তি কোথায় । কে বলে হত্যায় শান্তি! কে বলে-প্রতিশোধ-গ্রহণে তৃপ্তি - মিথ্যা কথা। দুনিয়ায় শান্তি নেই। উভবে ছিলেম, প্রতিশোধ গ্রহণ করেযদি ভিখারীরবৃত্তি অবলম্বন করতে হয়,-তাতেও কুষ্ঠিত হব না। কিন্ত-ততেই বা শান্তি কই ? রাস্তার ওই সকল উদার অকৃত্রিম