পাতা:অহল্যাবাঈ - মণিলাল বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/১৩৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


9o অহল্যাবাঈ DBL KS BBSBOBYBD KDSDDK DDD DBB DDD আর দুনিয়ায় নেই। যুদ্ধ আর মকদ্দম।” দাড়িপাল্লার এদিক আর ওদিক ! জেদের বসে সর্বস্ব পণ ক’রে মকদ্দমা ক’রে মানুষ সৰ্ব্বস্বাস্ত হয় তা তো জানি ; আর লড়াইটাও তাই ! বেশীর ভাগ-এতে সৰ্বস্বের সঙ্গে সঙ্গে তাজা তাজা প্ৰাণ গুলো পৰ্য্যন্ত খোয়া যায় ; দেশের গোবেচারা প্ৰজারা পৰ্যন্ত ধনে প্ৰাণে মারা পড়ে -এই যে যুদ্ধ বাধছে, এ জেদের যুদ্ধ। অবশ্য রাণী আমাদের রাণীর মতই কাজ করেছেন, তিনি যুদ্ধ ঘোষণা করতে বাধ্য-নইলে তার মৰ্যাদা থাকে না। কিন্তু রাণীর র্যারা হিতাকাজকী, তাদের কৰ্ত্তব্য-যুদ্ধ স্থগিত করা। তুলসী, আমরা রাণীর আশ্রিত, রাণীর জন্য আমরা সব করতে পারি, রাণীর সিংহাসন দৃঢ় করবার জন্য আমরা প্ৰাণ পৰ্যন্ত বলি দিতে পারি। আজ রাণী আমাদের বিপন্না-মহাশক্তিমান রাজ-রাজেশ্বর পেশোয়ার সঙ্গে জেদের বশে রাণী যুদ্ধ করতে যাচ্ছেন ৷ লক্ষ লক্ষ প্রাণীর প্রাণ এ যুদ্ধে নষ্ট হবে, ঘরে ঘরে হাহাকার উঠবে, পরিণামে কি হয় তাই বা কে জানে। কিন্তু আমরা যদি এ যুদ্ধ মিটিয়ে দিতে পাবি, রাণীর জেদ বজায় রেখে আমরা যদি এর একটা প্ৰতিকার করি, তাহলে কি যথার্থই আমাদের রাণীর অনুগত আশ্রিত হিতার্থীর মতন কাজ করা হয় না ? তুলসী।--তা হয় জানি, কিন্তু কি ক’রে তুমি তা করবে ? রাণীকে কি তুমি চেন না ? তার দুর্জয় পণ কিছুতেই ভঙ্গ হবে না-জীবন থাকতে DD BDBDD SDD BDBBDB BD DBBB DS BBBB DDD রাণীর কাছে রাজ্য ভিক্ষা চাইতেন, তাহলে হয় তো দয়াময়ী মহারাণী অন্নান বদনে তার বিশাল রাজ্য তাঁকে দান করতে পারতেন। কিন্তু রাঘবদাদা তাকে ভয় দেখিয়েছেন, তার ফলে মহারাণী অহল্যা আজ