পাতা:আগামীকাল - শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.pdf/৫৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


*ওরা অশ্মশাদাসহ নৌকোটা পেলাবটে। কিন্তু বিপলবীদের টিকির নাগালও পেল না। ওয়া ডুব সাঁতারে কোনদিকে ধাওয়া করেছে, অন্ধকারে চিৰ-সাঁতারে কোথায় মরার মত ভেসে আছে, পলিস পঙ্গবদের সাধ্য কি হদিস পায়। দিনেয়। বেলায় ওরা দ'জন অন্ধ সেজে পথে পথে ভিক্ষে করে। পথের ধারে ঝাঁপড়ি-ঘরে বাস করে। রাত্রির অন্ধকারে শরা হয়। ওদের অভিযান । ওদের সপ্রশস্থ উত্তাল উদ্দাম নদীপাড়ি দিয়ে মেদিনীপরের বিপ্লবীদের কাছ থেকে নানা লাঠকরা বন্দক ও গোলাবারদ নৌকো করে এপাড়ে নিয়ে আসতে গিয়েই বিপত্তিতে পড়তে হয়েছিল। তবে এটাকুই শান্তনা বন্দকের গালিগালি দ’জনের কোমড়ে বাঁধা ছিল, বে। হাত হয় নি । খেয়া-ঘাটের অন্দরবতী একটা ঝাঁকড়া অথবখ গাছের নীচে রমেন নকল-অন্ধ বিপলবীদের জন্য অপেক্ষা করতে লাগিল । এমন সময় একটা লাঠির দই প্রান্ত ধরে পথ হাতড়ে হাতড়ে অন্ধ-বিপ্লবী দ’জন রমেন-এর কাছে এল । অন্ধ দ’জনের মধ্যে একজনের নাম গণেশ আর দ্বিতীয়জন বিমল। উভয়েরই বয়স ত্ৰিশের কিছ বেশী। পরণে ময়লা-ছোঁড়া ধতি গায়ে তেলাঁচটে পড়া ছোড়া দটো হাফ সার্ট । গণেশ আর বিমলকে দেখেই রমেন ব্যস্ত-পায়ে ওদের কাছে এগিয়ে গেল । বিমল শাস্তু একটা কাঠির সাহায্যে খাঁচিয়ে খচিয়ে হাতের বাঁশের লাঠিটির মাথার মাটি সরিয়ে ছিদ্র থেকে একচিলতে দোমড়ানো কোঁচকানো চিরকুট বের করে রমেন-এর হাতে দিল । রমেন কাগজটার ভিঞ্জি খালে বস্তুব্য পড়তে লাগল। মণির উদ্দেশ্যে লেখা একটা ছোট্ট চিঠি। মণি পর পর ক'দিন রমেন’কে নিয়ে গণেশ আর বিমলের কাছে এসেছিল । ওদের সঙ্গে রমেন-এর পরিচয় করিয়ে দিয়েছিল । তাই বিমল মণির চিঠি রমেন-এর হাতে দিতে বিধা করল না। চট্টগ্রামের বিপলবী সংস্থা থেকে চিঠিটা পঠানো হয়েছে। চিঠির সম্বোধনে কারো নাম উল্লেখ নাই, এমন কি শেষেও কারো নাম সর্বাক্ষর নাই | উভয় BBDD BB DuDiBD DD DBDBD DBDB DBBYSS SuuuB BBDBD DBDDDS BBD খেয়া-ঘাটের অদরবতী পােরনো বট গাছের নীচে নৌকো অপেক্ষা করবে। যদি কোন গরম্বপণ খবর বা সংগহীত তপত্রেশস্ত্র কিছ: থাকে নৌকায় অবস্থানরত বিপলবীর DBDBDD DDBDB BD DDSS SuDu uOODB BBB BBB EE YYYSBDDD DB DDD অপেক্ষমান বিপ্লবীরা খবই বিষ্ণবস্থা। গণেশ ও বিমল আর মহন্ত মাত্র সময় নঘট না করে রমেনকে নিয়ে নদীর ধারের এক ঝোপের দিকে এগিয়ে গেল। ঝাঁকড়া গাছ আর লতাপাতায় বিস্তীর্ণ অঞ্চল ছেয়ে রেখেছে । গণেশ আর বিমল প্রায় হামাগাড়ি দিয়ে সে-ঝোঁপের মধ্যে ঢাকে অদশ্য হয়ে গেল । রমেন কিছটা এগিয়ে অপেক্ষা করতে লাগল। ইতিপূবে ও এখানে আর আসে নি। মণির অবশ্য এসব গোপন আস্তানা গণেশ ও বিমলের মতই নখদপণে । নারী-কল্যাণ-সমিতির জরুরী কাজ থাকায় আজ রমেন'কে আসতে হয়েছে। R