পাতা:আজ কাল পরশুর গল্প.pdf/১১১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


या थ °ों ब्र ७ डी अ ब्र व् ए थे আসলে বদনামটা কিন্তু খুব বেশী ছড়ায়নি। দু’চারদিন একটু ফিসফাস করে চুপ করে গিয়েছিল। কেদারের চরিত্রগত বেশ সুনাম আছে চারিদিকে। সকলে তাকে ভদ্র, সংযত, ভালমানুষ বলেই অনেকদিন হতে জানে। মানুষটা সে উদার, পরোপকারী। সৰ্ব্বত্র সে যে অনেকের চেয়ে বেশী টাকা চাদা দেয় তা নয়, মাঝে মাঝে নানা প্ৰতিষ্ঠানে মোটা টাকা দানও করে। তাকে ছাড়া সভাসমিতি হয় না, নতুন পরিকল্পনা দাড়ায় না। স্থানীয় হাসপাতাল, স্কুল, লাইব্রেরী প্ৰভৃতি সমস্ত সাধারণ প্ৰতিষ্ঠানের সঙ্গেই তার যোগ আছে। বন্ধু ও পরিচিত সকলেই তাকে পছন্দ করে, অনেক ব্যক্তিগত ও পারিবারিক ব্যাপারে তার পরামর্শও জিজ্ঞেস করতে আসে। একটিমাত্র খাপছাড়া বানানো বদনামে এরকম জনপ্রিয় মানুষের সুনাম নষ্ট হয় না। তবু, একটু ভয় পেয়ে ছোটলোকদের পাড়ায় যাওয়া কেদার অনেক কমিয়ে দিল ; এক মাসের মধ্যে জেলেপাড়ার ধারে কাছেও ভিড়ল না । কিন্তু একেবারে না গেলেও তো চলে না, নেতৃত্ব বজায় রাখা চাই। তাছাড়া ওদের অবস্থাও সত্যসত্যই বড় শোচনীয়, ওদের জন্য যতটুকু পারা যায় না করলেই বা চলবে কেন ? তাই, সকালের দিকে মাঝে মাঝে কেদার ওসব পাড়ায় যায় এবং কমপক্ষে সাত আটজন অনুগত ও উৎসাহী কৰ্ম্মীকে সব সময় বডিগার্ডের মতো সঙ্গে সঙ্গে রাখে । আগেও অবশ্য এ রকম বডিগার্ড দু’একজন কেদারের সঙ্গে থাকত। একা ওসব পাড়ায় যেতে তার চিরদিনই ভয় করে। এখন ছোটখাট একটি দল বেঁধে যায়, কেউ যাতে আর কোনমতেই እ መ ዓ ̇