পাতা:আজ কাল পরশুর গল্প.pdf/২২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


eां उन कां व् ° दू g 2 2 इत्र ফুটেছিল সকলের মুখে এক বিবাহিতা নারীর কলঙ্কের আলোচনা আরম্ভ হওয়ার প্রতীক্ষায়। তার তুলনায় এ যেন সরকারী জমায়েত ডাকা হয়েছে বৰ্ত্তমান অবস্থায় গ্রামবাসীদের কি করা উচিত বুবিয়ে দিতে । দাওয়ায় বসেছে মাথারা, মাঝ-বয়সী আর বুড়ো মানুষ। ঘনশ্যাম বসেছে মাঝখানে, একেবারে চুপ হয়ে, অত্যন্ত চিন্তিত ভাবে। তার ভাব দেখে মাথাদের অস্বস্তি জেগেছে- উপস্থিত মানুষগুলির ভাব দেখেও । দাওয়ার এক প্ৰান্তে মোড়ায় বসেছে শঙ্কর, সে এসেছে অযাচিত ভাবে। কেউ কেউ অনুমান করেছে তার উপস্থিতির কারণ, অনেকেই বুঝে উঠতে পারেনি। অঙ্গনের দক্ষিণ কোণে জন-সাতেকের সঙ্গে ঘেঁষাৰ্ঘেষি করে বসেছে রামপাদ, এদের আগে থেকে তার ভাব ছিল, বিশেষ করে করালী ও বুনোর সঙ্গে। মেয়েদের মধ্যে বসেছে মুক্ত, গিরির গায়ে লেগে । সে অবশ্য গিরিকে খুজে তার গা ঘেঁষে বসেনি, গিরিই তাকে ডেকে বসিয়েছে। পুরুষের অনুপাতে মেয়েদের সংখ্যা বড় কম হয়নি। সভায় । ঘনশ্যামের দৃষ্টি বার বার গিরির ওপরে গিয়ে পড়ে, সঙ্গে সঙ্গে সে চোখ সরিয়ে নেয়। 喃 বিচারের কাজে গোল বাধে গোড়া থেকেই। পূর্ব-পরামর্শ মতো বুড় টেকো নন্দী গৌরচন্দ্ৰকা সুরু করলে জমায়েতের মাঝখান থেকে রুক্ষ চুলে, খোচা খোঁচা গোফদাড়িতে আর একটা হািফজxহভূ ময়লা খাকি সার্ট গায়ে পাগলাটে চেহারার বনমালী উঠে চেচিয়ে বলে, “কিসের বিচার ? কায় বিচার ? রামপাদ’র বৌ কোন দোষ করেনি।” y