পাতা:আজ কাল পরশুর গল্প.pdf/৫৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


可廿西夺计可叶可四可分窗 থেকে তারস্বরে সংসারের খুঁটিনাটি অব্যবস্থার সমালোচনা করে। পোড়া তামাকপাতাগুড়ো খায়। মাঝে মাঝে অকারণে অদ্ভুত আওয়াজে খলখলিয়ে হাসে । 'মরণ । ’ বলে বৌ আর নাতবৌয়েরা। কেউ জোরে, কেউ নীচু গলায়। নীচু গলায় বলে কচি বৌয়েরা। বুড়ীকে মান্য ক’রে নয়, বুড়ী শুনলেও কানে তোলে না, কানে তুললেও কিছু আসে যায় না। ছোট মুখে বড় কথা শুনে শাশুড়ী-ননদরা পাছে চটে যায়, এই ভয় । নন্দ বাহারে চুল ছেটেছে নিতাই পরামাণিককে দিয়ে। নগদ অটগণ্ডা পয়সা আদায় করেছে নিতাই, তার ছেলে বরের সঙ্গে যাবে, কত কিছু পাবে, তবু। বাড়ীর সাতজন এই নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন ভাবে নিতাইকে মন্দ বলেছে। এরকম দিনে-ডাকাতি এদের সয় না । বুড়ী ডাকে পুতিকে, বলে, “অ, নন্দ, অ ঘােড়-ছাঁটানি ছোড়া, শোন, শোন ইদিকে, একটা কথা বলি। বিয়া তো করবি ছোড়া, মেয়াটা কুমারী বটে তো ?’ নন্দ’র মা শুনতে পেয়ে জা’কে বলে, 'মরণ! কথা শোন বুড়ীর।” তারপর চিন্তিত হয়ে ভুরু কুচকে বলে, 'নয় বা কেন। মেয়া নাকি दg दांgरु-क्षांएँी 6भशों।' ঘর ভাল ।” “ভাল ঘরে মন্দ বেশী। নয়। ধাড়ি করে রাখে মেয়াকে ?” বুড়ীর কাছে উবু হয়ে বসে নন্দ বলে, “কুমারী না তো কিতোর মতো বুড়ী ? ? “পাবি মোর নাখান কুমারী পিথিমী টুড়ে ?” ফোকলা মুখে AkiR