পাতা:আত্মকথা - সত্যেন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১৩৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বলিয়াছিলেন-আমরা কেবল পরীক্ষা দিতে পারি। ১৮৬৬ সালে এম-এ এবং ১৮৬৭ সালে বি. এল পরীক্ষা দিয়াছিলাম । শেষোক্ত পরীক্ষায় রাসবিহারী প্ৰথম স্থান অধিকার করিয়াছিলেন । আমি দ্বিতীয় স্থান অধিকার করি । বি. এল. পাস করিয়া সকলে যেমন আদালতে ছোটে, আমিও তেমনই ছুটিয়াছিলাম। চাকরী করিয়া স্বাধীনতা নষ্ট করিব না, তখন মনের ভাব এইরূপ ছিল । কিন্তু হাইকোটে গিয়া দেখিলাম, সেখানকার হাওয়া ভাল নয় । মামলা মোকদ্দমা আমার ভালও লাগিত না। শীঘ্রই বুঝিলাম, অনেকে ন্যায় অন্যায়ের দিকে দৃষ্টিপাত না করিয়া বৈরসাধনাৰ্থ অথবা জিগীষার বশবৰ্ত্তী হইয়া অর্থ নাশ করে। এমন কি সর্বস্বাস্ত হয় এবং সমাজে বিষম অসদ্ভাব এবং মনোমালিন্যের সৃষ্টি করে । মফস্বল হইতে আমার নিকট মোকদ্দমা পাঠাইবার লোকও ছিল না । মোক্তারদিগের খোসামোদ করিতেও পারিতাম না। ওকালতিতে কিছু হইল না দেখিয়া অগত্য চাকরীর চেষ্টা করিতে হইল। অধ্যাপকতা করিবার ইচ্ছা হইল। তখন উড়ো সাহেব শিক্ষাবিভাগের অধ্যক্ষ । তিনি বড় সহৃদয়তা প্ৰকাশ করিলেন। কিন্তু যখন বিদায় গ্ৰহণ করণার্থ উঠিয়া দাড়াইলাম। তখন তিনিও উঠিয়া দাড়াইয়া আমার মাথায় হাত দিয়া বলিলেনআমি যদি তোমার পিতা হাইতাম, তাহা হইলে তোমাকে এ বিভাগে আসিতে নিষেধ করিতাম। এ বিভাগে কাহারও কিছু হয় না। তেমন করিয়া কথা ভঁহার স্থায় কৰ্ম্মচারীরা এখন কাহেন। কিনা জানি না । তিনি পাঁচ সাত দিন পরেই আমাকে কটক কলেজে দুইশত টাকা বেতনের একটী অধ্যাপকতা দিতে চাহিয়াছিলেন। কিন্তু যখন শুনিলেন যে, আমার একটী ডিপুটি মেজেস্টরী পাইবার সম্ভাবনা হইয়াছে তখন আপনিই বলিলেন-না, অধ্যাপকতা লইও না, ডিপুটী মেজেষ্টিরীই লও। ১৮৭৮ সালে ঢাকায় ডিপুটীগিরি করিতে যাই। ডিপুটীগিরি ভাল চাকরী বলিয়া বোধ হইল না। ছয় মাস পরে ছাড়িয়া দিয়া কলিকাতায় আসিলাম। আসিবামাত্র ন্যায়রত্ন মহাশয় আমাকে বলিলেন-জয়পুর কলেজের প্রিন্সিপাল নাই, কান্তিবাবু আপনাকে চান, যাইবেন কি ? আমি যাইলাম। জয়পুরের ন্যায় সুন্দর শহর ভারতবর্ষে আর নাই। জয়পুর মহারাজ জয় সিংহের স্থাপিত। উহার গঠন-প্ৰণালী বিদ্যাধর নামক একজন বাঙ্গালীর উদ্ভাবিত। বিদ্যাধরের গলি বলিয়া জয়পুরে এখনও একটি রাজপথ আছে। জয়পুরের দেবালয়ে বাঙ্গালী পুরোহিতের সংখ্যাই অধিক ৷ জয়পুরেব রাজকাৰ্য্যে অনেক দিন হইতে বাঙ্গালীর প্রাধান্ত। দেখিলাম কান্তিবাবুই জয়পুরের প্ৰকৃত রাজা। জয়পুরে বিস্তর বাঙ্গালী দেখিলাম। ৬yযদুনাথ সেন মহাশয়ের বাটীতে একটী বিবাহে নিমন্ত্রিত হইয়া গিয়াছিলাম। বালক-বালিকান্তস্ক প্ৰায় দেড়শত বাঙ্গালী ভোজনে বলিয়াছিলাম। জয়পুরে থাকিলে অনেক টাকা করিতে পারিতাম। যেদিম V90