পাতা:আত্মকথা - সত্যেন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৪১২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


এই ৯৩নং কলেজ ষ্ট্রাট ভবনের ভিতর দিকে কতকগুলি ব্ৰাহ্ম বন্ধু থাকিতেন, "ণ্ঠাহীদের সঙ্গে আমি কিছুদিন ছিলাম। তখন ভারত সভার ঘরে কমিটির সম্মতিক্রমে সমদৰ্শী দলেরও বৈঠক চলিত। এখানে থাকিবার সময়ই আমি বিষয়কর্ম ত্যাগ করিয়া ব্ৰাহ্মসমাজের সেবাতে আত্মোৎসর্গ করি। যে চিরস্মরণীয় রাত্রে কেশববাবুর নিকট প্ৰতিবাদ পত্র প্রেরণের প্রস্তাব নির্ধারণ হয়, সে রাত্রে এই অভাৱত সভার গৃঙ্গেই আমাদের বৈঠক হইয়াছিল। বলিতে কি, ভারত সভা ও সাধারণ ব্ৰাহ্মসমাজ যেন যমজ। সহোদরের ন্যায় ভূমিষ্ঠ হইয়াছিল। একই লোক দুদিকে, একই ভাবে উভয়ের কার্য प्रक्रिशांछिल । পাঁচ বন্ধু। এদিকে আমি, কেদারনাথ রায়, নগেন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায়, শ্ৰীযুক্ত কালীনাথ দত্ত ও শ্ৰীযুক্ত উমেশচন্দ্ৰ দত্ত, এই পাঁচজন বন্ধু একত্র হইয়া ধৰ্মসাধনের জন্য একটি ক্ষুদ্র দল করিলাম। আমরা পাঁচজনে একত্ৰ বসিতাম, প্ৰাণ খুলিয়া ধর্ম বিষয়ে কথা বার্তা কহিতাম, নানা স্থানে মিলিত হইয়া উপাসনা করিতাম। মধ্যে মধ্যে ধর্মোপদেশের জন্য মহর্ষি দেবেন্দ্ৰনাথ ঠাকুরের নিকট যাইতাম । তিনি আমাদের নাম রাখিলেন। ‘পঞ্চ প্ৰদীপ’ । একদিন বলিলেন, লোক পঞ্চ প্ৰদীপে যেমন দেবতার আরতি করে, তেমনি তোমরা “পঞ্চ প্ৰদীপে” ঈশ্বরের আরতি করিতেছ। নামটি আমাদের বড় ভালো লাগিল । আমরা আপনাদের মধ্যে আমাদের সম্মিলনকে পঞ্চ প্ৰদীপের সন্মিলন বলিতে व्लाक्षिनाश । আর একটি পতিতা নারী থাকমণি। এই সময়ের উল্লেখযোগ্য আর দুইটি ঘটনা আছে । আমি যে লক্ষ্মীমণিকে স্ট্রীয় ভবনে আশ্রয়দান করিয়াছিলাম। সে সংবাদ বোধ করি কলিকাতায় প্রচারিত হইয়াছিল। এই দুইটি ঘটনাই পরোক্ষ ভাবে সেসংবাদের সহিত জড়িত । একদিন আমার বন্ধু প্ৰচারক রামকুমার বিদ্যারত্ন ও আমি দুইজনে মহর্ষি - দেবেন্দ্ৰনাথের চরণ দর্শন করিয়া গৃহে ফিরিয়া আসিতেছি। রাজেন্দ্রলাল মল্লিকের বাড়ির সম্মুখে আসিবার সময় একটি স্ত্রীলোকের পার্শ্ব দিয়া আসিলাম, কিন্তু, তত লক্ষ্য করিলাম না, তাহার মুখটা দেখিলাম না । তাহাকে অতিক্ৰম করিয়া কয়েক পা আসিয়াছি, এমন সময় পশ্চাৎ হইতে বামাকণ্ঠে শুনিলাম, ‘হঁ গা শাস্ত্রীমশাই, তোমরা এখন কোথা থাক ?” হঠাৎ ফিরিয়া দেখি, একটি গৌরবর্ণা যুবতী একটি শিশু কন্যার হাত ধরিয়া আসিতেছে। মুখ দেখিয়া চিনিতে পারিলাম। ভবানীপুর বাসকালে আমি এক নির্জন পল্লীতে বাস করিতাম। ঐ পতিতা নারী তাঙ্কার সন্নিকটেই থাকিত ও আমাদের মেয়েদের সঙ্গে এক পুকুৱে স্নানাদি করিত। সে ষে, আমাকে চিনিয়া রাখিয়াছে ও আমার নাম জানে, তাহা জনিতাম না । যাহা হউক, Y 68