পাতা:আত্মকথা - সত্যেন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৫৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রতিপত্তি লাভ করেন। আমি যখন বিদেশে কৰ্ম্মস্থলে তখন তিনি এখানে থেকে আমাদের বিষয়-কৰ্ম্ম সংক্রান্ত সকল বিষয়ে পরামর্শদাতা ও সর্বতোভাবে হিতচিন্তক ছিলেন । আমাদের পরিবারের সবাইকে আপনার মত করেই দেখতেন। তঁৱে ভালবাসার চিহ্নসকল আমার জীবনময় ছড়ানো রয়েছে আর তার কাছ থেকে সময়ে অসময়ে যে সকল উপকার পেয়েছি তার জন্য আমি তার নিকটে চিরখণী ৷ আমার জীবনের উপর দিয়ে কতশত ঘটনা গিয়েছে, অবস্থার কত পরিবর্তন হয়েছে, কত লোকের সঙ্গে আলাপ পরিচয় বন্ধুতা হয়েছে র্যাদের নাম স্মৃতি মাত্রই রয়ে গিয়েছে, কিন্তু এই যে বন্ধুতার কথা বলছি এ এখনো পৰ্য্যন্ত অক্ষুন্ন রয়েছে। আমি যার কথাগুলি এই লিখছি আমার সেই প্ৰিয়সুহৃৎ। এ সময়ে রোগশয্যায় শয়ান । ৫, ৬ বৎসর পরে তিনি উৎকট পীড়ায় কষ্ট পাচ্ছেন। কিন্তু পীড়ার যন্ত্রণায় তার স্বাভাবিক ক্ষুক্তি কখনো মান হ’তে দেখিনি। কোন দিন একটু ভাল কোন দিন মন্দ, এই উখানপতনের মধ্যে তিনি ধীরভাবে দিনযাপন করছেন । এই দুঃখ কষ্টে তার ধৈৰ্য্য অসীম, তার বীৰ্য্য ও সাহসের হ্রাস নাই। তঁর কি রোগ, চিকিৎসায় কি কি প্ৰয়োজন, তিনি এ সকলি তন্ন তন্ন করে জেনেছেন আৰু ডাক্তারেরা ঔষধ পথ্য যা কিছু ব্যবস্থা করেন, যাতে তার তিলমাত্র ব্যতিক্রম না। হয়। তিনি নিজেই তার তত্ত্বাবধান করেন । বলতে গেলে তিনি আপনিই আপনার চিকিৎসক, আপনিই আপনার ধাত্রী। একজন ইংলণ্ডপ্ৰবাসী বন্ধু এদেশে এসে তঁর এই অবস্থা দেখে বলছিলেন, “তারক যেন যমের সঙ্গে যুদ্ধ করছেন”- সত্যই করছেন-যমের সঙ্গে যুদ্ধ করেই তিনি এতদিন পৰ্য্যন্ত জীবিত রয়েছেন । ysi gigi Lukis Katsa, “sifts cgga wig Will-power-cak curig dias আছেন-আমাদের ডাক্তারি শাস্ত্রের সবই যেন উলটে দিয়েছেন।” মৃত্যু আজুক তাতে র্তার কোন ভয় নাই, কেবল ভয় এই যে, যে মহাৎকাৰ্য্য সমাধা করতে তিনি উৎসুক, পাছে মৃত্যুতে সে কাজের কোন ব্যাঘাত হয়। তিনি র্তার স্বোেপাজিত প্ৰভূত ঐশ্বৰ্য্য দেশের কল্যাণব্ৰতে উৎসর্গ করেছেন, তা কারো অবিদিত নাই। আমাদের দেশে যাতে বিজ্ঞান-শিক্ষার প্রচার হয়, বিজ্ঞান-বলে যাতে কৃষিশিল্পের উন্নতি এবং ঐ সঙ্গে দেশীয় লোকের অর্থে পার্জনের সহস্ৰ দ্বার উন্মুক্ত হয়, এই তার আন্তরিক ইচ্ছা । তিনি প্ৰথমে তার ধনবল একত্রে করে জাতীয় শিল্পবিদ্যালয় প্ৰতিষ্ঠার সহায়তা করেন, পরে যখন সেই বিদ্যালয়ের ব্যবস্থা তার মনঃপূত হ’ল না, তার স্থায়িত্বের প্রতি সন্দিহান হ’লেন তখন সেখানকার দান উঠিয়ে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে বিজ্ঞান-কলেজ সংস্থাপন উদ্দেশে নূতন দান ব্যবস্থা করলেনসামান্য দান নয় স্থাবর সম্পত্তি মিলে সাড়ে সাত লাখ টাকারও উপর । দানপত্রের S