পাতা:আত্মচরিত (শিবনাথ শাস্ত্রী).pdf/১০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


t শিবনাথ শারীর আত্মচারিত निडामह भाकून जनक अछाम नाउडाएव बहन कब्रिडन এমন লােক ছিল না যে, পিতামতী ঠাকুরাণীকে অপমানের কথা শুনাইয়া দশকথা নী শুনিয়া যায়, পিতামত মহাশয় অনেক অন্যায় কথা ও ব্যবহার নির্বাক DD DDD DDBDBSBDBBD DKDB DDBD DB DDBDBD S পিতামহী ঠাকুরাণী নিজগৃহের সুখ সমৃদ্ধি সর্বাগ্ৰে বুঝিতেন, সেই দিকে প্রধান দৃষ্টি রাখিতেন, বাহিরের লোকের সুখদুঃখের দিকে ততটা মন দিতেন না ; পিতামহের হৃদয়ের দ্বার বাহিরের লোকের জন্য সর্বদাই উন্মুক্ত ছিল। তিনি অতিশয় দয়ালু মানুষ ছিলেন। বড়পিসীর মুখে নিম্নলিখিত গল্পটী শুনিয়াছি। একদিন বড়পিসী দোলাতে বসিয়া আছেন, TD DBD BBDD DDD DDD DBB DBBBB S DBDDBD BBB শয়ন-ঘরে প্রবিষ্ট হইলেন। পিসী দেখিলেন তিনি গামছাখানি পরিয়া আসিয়াছেন, পরিধেয় বস্ত্ৰখানি নাই। তিনি জিজ্ঞাসা করিলেন, “বাবা । তোমার কাপড় কোথায় ফেলে এলে ?” পিতামহ তাহাকে নিকটে ডাকিয়া চুপে চুপে বলিলেন, “চেচিয়ে না মা ! তোমার মা যেন টের পায় না, কাপড়খানা একজন গরীবকে দিয়ে এসেছি।” ইহাতে বুঝিতে পারা যাইতেছে পিতামহ মহাশয়কে অনেক সময় পিতামহী ঠাকুরাণীর DBD BBDDD DBD DBDBD DBDSS DBDB BuDDD DDD DBB এই তেজস্বিতা ও নিজ পিতার এই সহৃদয়ত উভয়ই পাইয়াছিলেন। যাহা হউক, আমার পিতামহ ঠাকুর যখন গত হইলেন, তখন দুই পুত্ৰ, দুই কন্যা পশ্চাতে রাখিয়া গেলেন। তন্মধ্যে বড়পিলী তখন বয়ঃপ্ৰাপ্ত অর্থাৎ ১৬১৭ বৎসরের মেয়ে, এবং তৎপূর্বেই সন্তানের মুখ দেখিয়াছেন। কাজেই তিনি তখন গৃহের কত্রী হইয়া বসিলেন। পিসা মহাশয় এই সময় হইতে ঘরজামাই হইয়া, বড় পিসীর শাসনাধীনে থাকিয়া, আমাদের বাষ্ঠীতেই বাস ও সমুদয় বিষয়ের রক্ষণাবেক্ষণ করিতে লাগিলেন।