পাতা:আত্মচরিত (শিবনাথ শাস্ত্রী).pdf/২১৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সপ্তম পরিচ্ছেদ । ভবানীপুর সাউথ সুবাৰ্বন স্কুল হইতে আমার উৎদাহদাতা ও সহায় রাধিকাপ্রসন্ন মুখুয্যে মহাশয় আমাকে হেয়ার স্কুলে আনিলেন। হেয়ার স্কুলের হেডপণ্ডিত ও ট্রানগ্রেশন মাষ্টারের পদে আমাকে প্রতিষ্ঠিত করা হইল। রাধিকা বাবুর পরামর্শে উড্রো সাহেব আমাকে উক্ত পদ দিলেন। শুনিলাম সাটুক্লিফ সাহেব অন্য কাহাকে দিতে চাহিয়াছিলেন, তাহা রহিত করিয়া ডিরেক্টার উড্রো সাহেব আমাকে এই পদ দিলেন। পূর্বে উড্রো সাহেবের সঙ্গে যে আমার ঝগড়া হইয়াছিল, এবং উড্রো সাহেব আমার প্রতি চটিয়া আছেন, রাধিক বাবু তাহা জানিতেন। অনুমান করি। সদাশয় উড্রো সাহেবের তাহা মনে ছিল না, অথবা রাধিকাপ্ৰসন্ন বাবু কৌশলক্রনে সে বিরোধের কথা পশ্চাতে রাখিয়া, আমার প্রশংসা করিয়া উড্রো সাহেবের সম্মতি লইয়াছিলেন। যাহা হউক। উড়ো সাহেব স্নাইক্লিফের প্রস্তাব অগ্ৰাহ করিয়া আমাকেহেয়ার স্কুলে বসাইলেন। আমি বোধ হয় ১৮৭৬ সালের প্রারম্ভে হেয়ার স্কুল আসি। কিছুদিন ভবানীপুর হইতেই গতায়াত করিয়াছিলাম, অবশেষে কলিকাতাতেই উঠিয়া আসিলাম। আমি কলিকাতাতে উঠিয়া আসিলে আমাদের “সমদৰ্শী” দল আরও জমাট হইল। ব্ৰাহ্মসমাজে নিয়মতািন্ত্র প্ৰণালী প্ৰবৰ্ত্তিত করিবার চেষ্টাও চলিতে লাগিল। এদিকে আমি, কেদারনাথ রায়, নগেন্দ্ৰনাথ চট্টোপাধ্যায় প্রভৃতি আমরা পাঁচজন বন্ধু একত্ৰ হইয়া ধৰ্ম্মসাধনের জন্য একটী ক্ষুদ্র দল করিলাম। আমরা পাঁচজনে একত্ৰ বসিতাম, প্ৰাণ খুলিয়া ধৰ্ম্মবিষয়ে কথাবাৰ্ত্ত কহিতাম, নানাস্থানে