পাতা:আত্মচরিত (শিবনাথ শাস্ত্রী).pdf/২২৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


RRVë मिदनांथ भक्ौिद्ध चांपशफ़ब्रिड করিতেছিলেন। আমি সেখানেও মধ্যে মধ্যে তাহার বিমল সহবাস কিয়াৎকাল, যাপন করিবার জন্য যাইতাম। তিনি অতি পরিহাস্যরসিক আমোদপ্রিয় পুরুষ ছিলেন। আমিও তদ্রুপ, সুতরাং দুজনের একত্ৰ সমাগম হইলে উভয়ের জিগল্পিস প্ৰবৃত্তি প্ৰবল হইয়া উঠিত। হাসিতে হাসিতে লোকের নাড়ীতে ব্যথা হইয়া যাইত। এবারেও হরিনাভিতে তাহা ঘটিল। একদিন রাত্রে সামাজিক উপাসনার পর আঙ্গারান্তে আমাদের দুইজনের গল্পের কাটাকাটিতে রাত্রি ২ টা বাজিয়া গেল। BBBBKS DDLDDD DBD DBB S SBB BDDBDB DD DBD DBBD ম্যালেরিয়াবশতই হউক আমি কলিকাতায় আসিয়াই জরাক্রান্ত হইলাম। জ্বরের সঙ্গে রক্তকাশ দেখা দিল । একজন ডাক্তার বলিলেন ইপিকাশের সূত্রপাত, কিন্তু ডাক্তার মহেন্দ্ৰলাল সরকার বলিলেন ক্ষয়কাশের সুত্ৰপাত। সেইরূপ চিকিৎসা আরম্ভ করিলেন। এই পীড়ার সময় আমার পূজনীয় জনক-জননী কি করিয়াছিলেন, এবং আমার বিশ্বাসী অনুগত ভূত্য খোদাই কি করিয়াছিল, তাহা লিপিবদ্ধ করিবার উপযুক্ত। তৎপুবেৰ আট বৎসরকাল আমার পিতাঠাকুর মহাশয় আমার মুখদর্শন করেন নাই। প্ৰথম প্ৰথম আমাকে গ্রামে প্ৰবেশ করিতে দিবেন না বলিয়া গুণ্ডা ভাড়া করিতেন তাহা অগ্ৰেই বলিয়াছি । শেষে সে প্ৰয়াস ত্যাগ করিলেন বটে, কিন্তু আমি বাড়ীতে কোনও ঘরে আছি জানিলেই সে ঘরের দিকে যাইতেন না। পথে আমাকে দেখিলে সে পথ পরিত্যাগ করিতেন। এইরূপ চলিতেছিল। আমি পীড়াতে পড়িয়া যখন বুঝিতে পারিলাম যে পীড়া কঠিন, আমার জীবনসংশয়, তখন তাহাকে সংবাদ দেওয়া উচিত মনে করিলাম। রোগশয্যায় পড়িয়া তাহাকে পত্র লিখিলাম। পীড়ার সংবাদ দিয়া লিখিলাম, “যদি উচিত বিবেচনা করেন, আসিয়া দেখা দিয়া আমাকে পদধূলি দিয়া যাইবেন। তাহা না হইলে এই