পাতা:আত্মচরিত (শিবনাথ শাস্ত্রী).pdf/৪০০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শিবনাথ শাস্ত্রীর আত্মচারিত “আধা ঘণ্টা বসিবে, তাও পার না ? আমার সঙ্গে ভারতবর্ষে ঢল, “আমি দেখাইয়া দিব, আমাদের দেশের সাধুৱা প্ৰাতঃকাল হইতে সন্ধ্যা পৰ্যন্ত ধ্যানে বসিয়া আছেন।” ষ্টেড করতালি দিয়া হাসিয়া বলিলেন, “ও DDDBS BB DBD DBDD TDB BB DDBBDS DBDB SDtD করিয়া জিনিয়া লইলাম। এত দিনের পর বুঝিলাম, তোমরা চোখ মুদিয়া থাকিয়াছ, আমরা পশ্চাৎ হইতে মারিয়া লইয়াছি!” ইহা লইয়া খুব হাসাহাসি চলিতে লাগিল। আর একদিনের কথা মনে আছে; সেদিনও আমাকে আহার করিতে अौटक cवडडब ७ बाननिक cधब्रभाब (Telepathy) दिवtब किई বলিলাম। তৎপুর্বে লণ্ডনের কোন পরিবারে নিমন্ত্রিত হইয়া যাহা দেখিয়াছিলাম, তাহা বৰ্ণনা করিলাম। সে বিষয়টা এই-সেদিন আহারের পর সে বাড়ীর মেয়েরা আমাকে এক খেলা দেখাইলেন। একটা মেয়ে আমাকে পাশের এক ঘরে লইয়া গিয়া রুমাল দিয়া আমার দুই চক্ষু BDBBB S BB DBBBDSSkLDBDDBDS DDBDBBDBS DDDS DDuDS সেখানে দাড় করিয়ে দেবো, নিজে একটা কিছু ইচ্ছা রাখবে না, চুপ করে দাড়িয়ে থাকবে, তারপর চলতে ইচ্ছা হলে চলবে, কিছু করতে ইচ্ছা! হলে করবে, তাতে বাধা দিবে না। আমি তোমার পশ্চাতে দাড়িয়ে কঁধে হাত দিয়ে থাকব। মাত্র।” এই বলিয়া মেয়েটা আমার চক্ষে কাপড় বাধিয়া আমাকে বৈঠকঘরে আনিয়া দাঁড় করাইয়া দিল, এবং নিজে আমার পশ্চাতে দাড়াইয়া কাধে হাত দিয়া রহিল। আমি যথাসাধ্য মনটা নিক্রিয় করিয়া রাখিলাম। ক্ৰমে চলিতে ইচ্ছা হইল, সেই চোখবাধা অবস্থাতেই অগ্রসর হইলাম ; হাত বাড়াইতে ইচ্ছা হইল, হাত বাড়াইলাম ; একটা চেয়ারের উপর হইতে একখানা কাপড় তুলিতে