পাতা:আত্মচরিত (শিবনাথ শাস্ত্রী).pdf/৭৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দ্বিতীয় পরিচ্ছেদ BBTGDBD DD BB DDB BBDSDB DB DDD DDDD BLBDB B BD DDDDS LBDB LBLBDB DBD DB BBD DDDBD আনিবার জন্য গেল। একজনের পর আর-একজন গেলে তিনি কাহারও কথাতে বিশ্বাস করিলেন না। অবশেষে পীড়াপীড়ি করাতে বলিলেন, “কৃষ্ণচরণ নাপিত যদি আসিয়া বলে যে ছেলে বেঁচে আছে। তবে আমি सांव, बांब्र कांक कथांड बांब नां ।” এই কৃষ্ণচরণ নাপিত পাড়ার একজন বৃদ্ধ দোকানদার ছিলেন। তিনি বড় ভক্ত ও ধৰ্ম্মভীরু মানুষ ছিলেন। পাড়ার লোকে তাহাকে “ভক্ত কৃষ্ণচরণ” বিলিয়া ডাকিত । সেই রাত্রে কৃষ্ণচরণের নিকট লোক গেল। বৃদ্ধ লাঠি ধরিয়া অতি কষ্টে আসিলেন এবং আমার সহিত কথা BDBDD DBDS DDDL BBDS DD DDD DBDD LD DBKB BBBD উঠিয়া আসিলেন এবং “বাবারে তুই কি আছিল!” বলিয়া আমার শষ্যাপার্থে পড়িয়া কাদিতে লাগিলেন। এদিকে আমার যখন চেতনা হইল। তখন আমি আমার স্বভাব সিদ্ধ জ্যাঠাম করিয়া বলিতে লাগিলাম “আমি মেজ দাদার সঙ্গে ঝগড়া DDBDBDBBBDS DB BBBBDS BD DBDBBSBBD DDD S SDDDD লঘুপাপে এত গুরুদণ্ড দেওয়া বাবার পক্ষে কি ভাল হয়েছে ? আমার স্ত্রী ও শ্বশুরবাড়ীর লোকেরা বাড়ীতে রয়েছে, পাশের বাড়ীতে কুটুমরা এসেছে, তাদের সমুখে এত মারা কি বাবার পক্ষে ভাল হলো ?” এই কথা বলিতে না বলিতে দেখিতে পাইলাম। বাবা অদূরে মাটীতে নাক ঘসিয়ানাকে খিৎ দিতেছেন। এখানে এ কথা বলা আবশুক যে তাহার পরে তিনি DBD DBBDB DBLBLB S BDB D DBDBBD LDDBDBD DD DBDD BDB তোলেন নাই। এমন কি আমি ব্ৰাহ্মসমাজে যোগ দিয়া উপবীত পরিাত্যাগ করিলেও তিনি তর্জন গর্জন করিয়াছেন, দন্তে দন্ত ঘর্ষণ করিয়া