পাতা:আত্মচরিত (সিগনেট প্রেস) - শিবনাথ শাস্ত্রী.pdf/২৫২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অপরের প্রতি করিও না।” ইহা তো প্ৰকারান্তরে ঐ একই কথা! বলেন। তবে বাইবেলের অলৌকিকতা কোথায় রহিল ? আপনি কি বলেন ? সত্যের প্রবতর্বিক কে ? ঈশবরই তো সত্যের প্রবতক । তবেই তো প্রমাণ হইতেছে যে, তিনি দেশ ও জাতি নিবিশেষে আধ্যাত্মিক সত্য সকল অভিব্যন্ত করিয়াছেন।” আমার যত দর স্মরণ হয়, তিনি মৌনী হইয়া থাকিলেন। কিন্তু আর একটি মিশনারী ভদ্রলোক বলিলেন, “কথাটা কি জানো ? দলটি শয়তান অনেক সময় ধমের মখস পরিয়া মানষকে বিপথে লইয়া যায়। অনেক উচ্চ কথা মানষের গোচর করিয়া তাহাকে পথভ্রান্ত করে। সতরাং শয়তানও সত্য অভিব্যক্ত করে। সেই বিপদ হইতে রক্ষা করিবার জন্যই যীশর অভু্যদয়।” শনিয়া আমি বলিলাম, “আমি আপনার কাছে হার মানিলাম!” ভাবিলাম ইহাদের সঙ্গে বিচারে প্রবত্ত হওয়া ব্যথা । তখন দেশ হইতে আসিবার সময়কার সমদ্র পথের একটি ঘটনা সমরণ হইল, তাহা যথাস্থানে লিখিতে ভুলিয়া গিয়াছি। ইংলন্ডে যাইবার সময় সিংহল হইতে কয়েকজন খ্যান্টীয় মিশনারী আমাদের সঙ্গী হইয়াছিলেন, তাহা সেই বিবরণের সম্পকে লিখিয়াছি। ইহারা পথিমধ্যে প্রতি রবিবার আরোহীদিগকে লইয়া জাহাজের এক পাশে বা গিজা করিতেন। আমি তাঁহাদের উপাসনাতে যাইতাম। দই-তিনবার যাওয়ার পর একজন মিশনারী - একদিন আমাকে জিজ্ঞাসা করিলেন, “আমাদের উপাসনাদি তোমার কেমন লাগিতেছে ?” আমি । ভালোই লাগিতেছে। কেবল একটা চিন্তা বার-বার আমার মনে উদয় इ2: । মিশনারী । সেটা কি ? আমি। আপনারা উপদেশে প্রায় প্রতি বার বলেন যে, মনষ্যের পাপে জন্ম, মনষ্যের প্রকৃতি পাপপ্রবণ, সভ্যতার যতই উন্নতি হইতেছে ততই মানষে ঘন হইতে ঘনতর পাপে নিমগন হইতেছে। অথচ ইহাও বলেন যে, অবশেষে মানষ ঈশবর চরণে আসিবে। ইহা কিরাপ ? যদি মানষ দিন-দিন অধিক হইতে অধিকতর পাপেই ডুবিল, তবে আবার পণ্য উন্নতি পণ্য সখি পাইবে কিরাপে ? মিশনারী। তা বঝি জানো না ? প্ৰভু যীশ যখন আবার আসিবেন, তখন শয়তানকে ধরিয়া এক অন্ধকার গহবরে বন্ধ করিয়া ফেলিবেন । মানষেকে প্রলব্ধ করিবার কেহ থাকিবে না, সতরাং মুনিষ নিৰ্ভপাপ হইবে। এই উত্তর শনিয়াও আমি হাঁ করিয়া মৌনাবলম্বন করিয়াছিলাম। পরে ইংলন্ড বাস কালে একদিন সম্প্ৰসিদ্ধ রেভারেন্ড সন্টপফোড ব্লকের নিকট এই কথার উল্লেখ করাতে তিনি হাসিয়া বলিয়াছিলেন, “ইহা তোমাদের পরাণের মতো এক প্রকার পরাণ।” সিংহলো জজ মিলারের দশন লাভ। এই সমদ্রযাত্রা কালের আর একটি বিষয় সমরণ আছে । আমরা যখন সিংহলের রাজধানী কলম্বো শহরে আসিয়া উপস্থিত হইলাম, তখন শানিলাম ব্ৰিসন্টল অনাথাশ্রমের প্রতিস্ঠাতা জজ মিলার দেশ ভ্ৰমণ করিয়া সবদেশে ফিরিবার সময়ে সেখানে আসিয়া এক হোটেলে অবস্থিতি করিতেছেন। ইহা শনিয়াই তাঁহাকে দেখিবার জন্য আমি সেই হোটেলে গিয়া উপস্থিত হইলাম। তিনি দয়া করিয়া আমাকে দেখা দিলেন। আমি তাঁহার সঙ্গে কয়েক মিনিটমাত্র যাপন Հ8Ե