পাতা:আত্মচরিত (সিগনেট প্রেস) - শিবনাথ শাস্ত্রী.pdf/২৯২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


তাঁহার মাতুতে কেবল আমার সন্তানেরাই যে মা-হারা হইয়াছিল। তাহা নহে, তাঁহার জন্য অনেকের চক্ষে জল পড়িয়াছিল। আমি বহল বৎসর পতবে ঈশবর চরণে নিবেদন করিয়াছিলাম “আমি বড় দঃখী তাতে দঃখ নাই, পরে সখী করে সখী হতে চাই। নিজে তো কাঁদিব, কিন্তু মছাইব অপরের অখি,-এই ভিক্ষা চাই। No. 2 r air চাহে না এ প্ৰাণ, যদি কাজে আসি তবে বেচে যাই । বহন কন্টে পাণ আমার অন্তর, এই আশীবাদ কর, হে ঈশবরখাটিতে বাঁচিব, এই বড় আশা; পণ্য কর। তাই।” তখন আমি যে ছবি আদশে রাখিয়াছিলাম, প্ৰসন্নময়ী তােহা জীবনে পরিণত করিয়া দেখাইয়া গিয়াছেন । তিনি সংসারের শত কন্ট ও অশান্তির মধ্যে পারকে সখী করিয়া সখী হইয়াছেন, নিজে কাঁদিয়া অপরের আশ্রম মছাইয়াছেন এবং অনলাস শ্রমশীল ও কতব্যপরায়ণ জীবন যাপন করিয়া গিয়াছেন। যথার্থই তিনি খাটিতে বাঁচিয়াছেন ও খাটিয়া মরিয়াছেন ৷