পাতা:আত্মচরিত (৩য় সংস্করণ) - শিবনাথ শাস্ত্রী.pdf/২৪৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নবম পরিচ্ছেদ ভবানীপুরে সাউথ সুবার্বন স্কুলের হেড মাষ্টার। ভবানীপুরে ব্ৰাহ্মসমাজ স্থাপন। ভারতবর্ষীয় ব্ৰাহ্মসমাজে নানা আন্দোলন । বঙ্গ মহিলা বিদ্যালয় । প্রচারকগণ বিচারের অতীত কি না ? কেশবচন্দ্রের মতের সমালোচনা । ‘সমাদশী’ । রামকৃষ্ণ পরমহংস। ব্ৰহ্মময়ী। নগেন্দ্ৰ বাবু। হেয়ার স্কুলের কাৰ্য্যপ্ৰাপ্তি ও ভবানীপুর ত্যাগ। و ۹ بود -سسس-8 || سرد ভবানীপুর সাউথ সুবার্বন স্কুলের হেড মাষ্টার।—আমি নখন হরিনাভিতে বাস করি তখন সে স্থানে ম্যালেরিয়ার প্রথম আবির্ভাব ; তাহার প্রকোপ তখন অত্যন্ত অধিক। সেখানে যাইবার কিছু দিন পরেই আমাকে ম্যালেরিয়া জরে ধরে, ও বার বার জর হইয়া আমাকে বড় কাহিল। করিয়া ফেলে ; তাহার উপরে পূর্বোক্ত সকল কারণে গুরুতর পরিশ্রম করিতে হইত ; তাহাতে দেড় বৎসরের মধ্যেই আমার শরীর ভাঙ্গিয়া গেল। আমার এই অবস্থা দেখিয়া আমার শুভানুধ্যায়ী তৎকালীন স্কুল সমূহের ডেপুটি ইনস্পেক্টর রাধিকাপ্ৰসন্ন মুখোপাধ্যায় আমাকে ভবানীপুরের নবপ্রতিষ্ঠিত সাউথ সুবার্বন স্কুলের হেড মাষ্টর করিয়া আনিলেন। যত দূর স্মরণ হয়, আমি ১৮৭৪ সালের শেষ ভাগে ঐ স্কুলে আসিলাম । আমার স্বগ্রামবাসী ও আমার জ্যেষ্ঠ ভ্রাতৃসম ভক্তিভাজন উমেশচন্দ্ৰ দত্ত মহাশয় আমার স্থানে হরিনাভির হেড মাষ্টার হইয়া গেলেন।