পাতা:আত্মচরিত (৩য় সংস্করণ) - শিবনাথ শাস্ত্রী.pdf/২৬৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Sኴ”ፃŠ,ፃ ዓ ] থাকমণি ৷ R Rad থাকিতে থাকিতেসে লক্ষ্মীমণিকে দেখিয়াছে ; এবং ব্রাহ্মেরা কিরূপে তাহাকে উদ্ধার করিয়া আমার গৃহে রাখিয়াছে, তাহাও শুনিয়াছে। তাই তাহার শিশু কন্যাটিকে আমার হস্তে দিবার জন্য আমাকে ডাকিয়াছে। আমি জিজ্ঞাসা করিলাম, “তোমার মা ও ভাই আছেন, তঁহাদের অবস্থা ভাল, তবে কেন তুমি এমন পথে পা দিলে ?” থাক” । কি ক’রে ফিরব, যাবার যে নেই। তাই ভাবি, যার সঙ্গে ভেসেছি তাকেই আশ্রয় ক’রে থাকি। তাই তাকেই আশ্রয় ক’রে আছি । সে বেচারার স্ত্রী আছে, ছেলে পিলে আছে ; অল্প আয়, আমার সব খরচ দিয়ে উঠতে পারে না ; আমাকে বড় কষ্টে থাকতে হয়। আমার যা হবার হয়েছে, এখন ভাবি মেয়েটাকে এ পথ হ’তে কি ক’রে বাচাই । শাস্ত্রী মশাই, আপনি লক্ষ্মীমণিকে বাঁচিয়েছেন, তাই আপনার চরণে শরণাপন্ন হচ্ছি। আমি । তোমার মেয়ে যে এখনও মাই ছাড়ে নি। এত ছোট মেয়ে কি মা ছেড়ে থাকতে পারবে ? থাক” । সে একটা ভাবনার কথা বটে। তবে মনে হয়, একটু ভালবাসা সত্ন পেলে ক্ৰমে মাকে ভুলে যাবে। আপনার স্ত্রীর ভালবাসার গুণে ও বিশ হ’য়ে যাবে। আমি । আচ্ছা, আরও দুই তিন মাস যাক, মেয়েটা মাই ছাড়ক, তখন অমুক ঠিকানায় আমাকে খবর দিও। এই বলিয়া আমরা চলিয়া আসিলাম। হায় । সে আর খবর দিল না । ইহার পরে আমার পীড়া হইয়া, সে বাসা ভাঙ্গিয়া গেল ; আমি মুঙ্গেরে। চলিয়া গেলাম। তৎপরে সাধারণ ব্ৰাহ্মসমাজের কাজে মাতিলাম, থাকিমণি ও তাহার কন্যা স্মৃতি হইতে সরিয়া পড়িল। হয় তা তাহার মান বদলাইয়া গেল, না হয়। আর আমার উদ্দেশ পাইল না। যে কারণেই হউক, থাকমণির উদ্দেশ অঙ্গর পাইলাম না।