পাতা:আত্মচরিত (৩য় সংস্করণ) - শিবনাথ শাস্ত্রী.pdf/৪১৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


>vvャ] ইংলেণ্ডের সাধারণ প্রজাবর্গের পানাসক্তি VVY দেখিতাম, সেখানকার খারাপ মেয়েরা বড় সার্সী ; রাস্ত হইতে পুরুষদিগকে ধরিয়া পাকড়িয়া লইয়া মায়। আমরা ইংলণ্ডে পৌছবার কিছু দিন পূৰ্ব্বে নাকি এক আইন বিধিবদ্ধ হইয়াছিল যে, যে-মেয়ে রাস্ত ঘাটে অপরিচিত পুরুষকে বিরক্ত করিবে, সে পুরুষ সে কথা পুলিসের গোচর করিলেই সে মেয়েকে গ্রেপ্তার করিবে, ও আইনানুসারে তাহার দণ্ড হইবে। কিন্তু বিদেশের কলা মানুষ দেখিলে বোধ হয় তাহারা মনে করিত যে ইহারা আমাদের এ আইন জানে না ; কারণ, দেখিতাম কালা মানুসকে বিরক্ত করিতে ভয় পাইত না । এক দিন আমি একটি অধিক রাত্রিতে বাড়ীতে আসিতেছি। পাড়ার নিকটে গলির মোড়ে একটি মেয়ে আমাকে G () (), d, even i৷gা করিয়া জিজ্ঞাসা করিল, কেমন আছি । আমি মাথারীতি বলিলাম, Quite we]], thank you । মনে করিলাম, দোকানে পোষ্ট আপীসে কত মেয়ের সঙ্গে কথা হয়, তাতাদের মধ্যে কেহ হইবে । তার BBBB SBBBB DBBDBS BBBSDDD SSSS SSBBLBBB BBBBSSSLLLLSSH HHHLHL S LLLLLLLLS heart ? বলিয়াই একেবারে আমার বাহু তাহার কুক্ষিতলে পুবিয়া লইয়া আমার সঙ্গে সঙ্গে আসিতে লাগিল। আমি ঘূণায় হাত বাহির করিয়া লইয়া বলিলাম, “তুমি গোক কোথায় ? রাত্রে এখানে বেড়াইতেছ। কেন ?” তাহার উত্তরে সে যাহা বলিল ও করিল, তাহা স্মরণ করিতে লজ্জা হয়। আমি ত্বরায় তাহার হাত ছাড়াইয়া চলিয়া আসিলাম, কিন্তু তথাপি সে ক্ষণকাল সঙ্গে সঙ্গে আসিল । অপরিচিত পুরুষের প্রতি স্ত্রীলোকের এত দূর সাহস কখনও দেখি নাই। ভাবিতে লাগিলাম, আমাদের দেশের সুবকেরা এখানে আসিয়া কি বিপদের মধ্যেই বাস করে । অধিক রাত্ৰে লণ্ডনের রাস্তা যে কি এক মূৰ্ত্তি ধরে । যাকে দেখি সেই নেশাতে টৎ। রাত্ৰি ১১টার পর যদি কোনও দূর স্থান হইতে রেলগাড়িতে বাড়ীতে আসিতে হইত, দেখিতে পাইতাম, ষ্টেশনে যে টিকিট বিক্রয় করিতেছে সে নেশাতে চুর ; ষ্টেশনের যে লোক (porter) গাড়ির দরজা