পাতা:আত্মচরিত (৩য় সংস্করণ) - শিবনাথ শাস্ত্রী.pdf/৪৩৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


www) জর্জ মুলারের অনাথাশ্রম M97 è করিবার জন্য প্রেরিত হইয়াছিল । আমরা যখন তঁহার আশ্রয় বাটিকা দেখিবার জন্য গেলাম, তখন গিয়া সেখানে দাড়াইয়া বিস্মিত হইয়া ভাবিতে লাগিলাম, কিসের অধিক প্ৰশংসা করিব, ইংরাজের কাৰ্য্যের ব্যবস্থা করিবার অদ্ভুত শক্তির, অথবা পরহিতৈষণার। কাজের এরূপ সুব্যবস্থা জীবনে কখনও দেখি নাই, এরূপ পরোপকার প্রবৃত্তিও দেখি নাই । জর্জ মুলারের অনাথাশ্ৰম -এইরূপ আর একটি আশ্রয় বাটিকা দেখিয়া বিস্মিত হইয়াছিলাম। সেটি ব্ৰিষ্টল নগরের সুপ্ৰসিদ্ধ জর্জ মুলারের প্রতিষ্ঠিত অনাথাশ্রয় বাটিকা। ইহার ইতিবৃত্ত অতি অদ্ভুত। কিরূপে জর্জ মূলার এক পয়সা ভিক্ষা না করিয়া, চাদ না তুলিয়া, কেবলমাত্র ঈশ্বর চরণে প্রার্থনা করিয়া, স্বতঃপ্রবৃত্ত দানের দ্বারা ৬৩ বৎসর এই সকল আশ্রয় বাটিকাতে এক কালে সহস্ৰাধিক পিতৃমাতৃহীন বালক বালিকাকে রাখিয়া প্ৰতিপালন করিয়া আসিয়াছেন, তাহার ইতিহাস অতীব বিস্ময়কর, ও ঈশ্বর বিশ্বাসী ব্যক্তিমাত্রেরই পাঠের যোগ্য। আমি গিয়া দেখিলাম, পাঁচটি আশ্রয় বাটিকাতে প্ৰায় দুই সহস্ৰ বালক বালিকা প্ৰতিপালিত হইতেছে। তাহাদের জন্য পাঁচটি প্ৰকাণ্ড প্ৰকাণ্ড বাড়ী নিৰ্ম্মিত হইয়াছে, যাহার জানালার সংখ্যাই এগার শত। ঈশ্বর চরণে প্রার্থনা ও মানুষের স্বতঃপ্রবৃত্ত দানের দ্বারা এই সকল ভবন নিৰ্ম্মিত হইয়াছে। ভবনে প্ৰবেশ করিয়া প্ৰথমে শিশুদের ঘরে গেলাম। গিয়া দেখি, দুই জন স্ত্রীলোক ২০২ ৫টি শিশুকে লইয়া খেলা দিতেছেন ও সুরক্ষা করিতেছেন । তৎপরে অপরাপর গৃহও দেখিলাম। কি সুব্যবস্থা, কি রক্ষা ও শিক্ষার রীতি ; দেখিয়া অবাক হইয়া গেলাম। কয়েক জন কোয়েকারের শ্রমজীবী সেবা ।-কোয়েকার সম্প্রদায় ভুক্ত কয়েক ব্যক্তি নিয়ম করিয়াছিলেন যে, প্রতি রবিবার প্রাতে একটি ভবনে তঁাহারা শ্রমজীবী দিগকে একত্র করিয়া ধৰ্ম্মোপদেশ দিবেন। আমাকে এক দিন দেখিবার জন্য ডাকিয়াছিলেন। আমি গিয়া তঁহাদের