পাতা:আত্মচরিত (৪র্থ সংস্করণ) - শিবনাথ শাস্ত্রী.pdf/২০৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


»bY4 o- R ] কেশবচন্দ্ৰেৰ ইংলণ্ড যাত্রা SS তবে চােখে চশমা কেন ?” তিনি হাসিয়া বলিলেন, “ওহে বাপু, স্বপন ত দেখতে হয়।” কেশবচন্দ্রের ইংলণ্ড যাত্রী -১৮৭০ সালেব প্ৰাবম্ভে তিনি যখন ইংলণ্ড যাত্ৰা কবিলেন, তখন একদিন আমাদেব অনেককে একত্ৰ কবিয়া অনেক কথা বলিয়াছিলেন। তিনি বিদেশে যাইতেছেন, কি হয়। TDDDBBD DDD S BDDB BDBBBB DBD BBDB DBBDB D DBDDD DBD সম্ভাবনা, সে-সকল বিষয়ে কিছু কিছু বলিয়াছিলেন। তন্মধ্যে একটা কথা মনে আছে। তিনি মহাপুরুষেব মতেব উল্লেখ কবিয়া বলেন যে, তিনি মঙ্গাপুৰুষদিগকে মনে কবেন যেন চশমা,--অর্থাৎ চশমা। যেমন চক্ষুকে আববণ কবে না, কিন্তু দৃষ্ট্রিব উজ্জ্বলতা সম্পাদন কবে, তেমনি মহাপুরুষগণ ঈশ্বব ও মানবেব মধ্যে দাডাইয়া ঈশ্ববিদর্শনেব ব্যাঘাত কবেন না, কিন্তু ঈশ্ববিদর্শনেব সহায়তা কবেন। অথবা মহাপুৰুষেবা যেন দ্বাববান ; দ্বারবান যেমন আগন্তুক ব্যক্তিকে প্ৰভুব সমীপে উপনীত কবিয়া দেয়, তৎপবে। আর তাৰ কাজ থাকে না, তেমনি মহাপুৰুষগণ ঈশ্বব-চৰণে মানবকে উপনীত কবিয়া দেন, নিজেবা আব্ব মধ্যে থাকেন না। আমাব মনে হইতেছে, আমি তখন র্তাহাকে বলিয়াছিলাম, “মহাপুৰুষেবা চশমা, তাহা ঠিক ; কিন্তু কাহাকেও যাদ বাববাব বলা যায়, “দেখ, দেখ, ঐ তোমার চোখে চশমা, ঐ তোমাব চোখে চশমা, তাহা হইলে দ্রষ্টব্য পদার্থ হইতে তাহাব দৃষ্টিকে তুলিয়া, সে দৃষ্টিকে চশমাৰ উপবেই ফেলিয়া দেওয়া হয়। তেমনি মহাপুৰুষগণ ঈশ্ববিদ্যুশনেৰ সহায় হইলেও, “ঐ মহাপুরুষ, ঐ মহাপুরুষ’ কবিয়া যদি তাহদেব প্রতিই দৃষ্টিকে অধিক আকৃষ্ট করা হয়, তাহা হইলে ঈশ্বরকে পশ্চাতে ফেলা হয়।” DB S mDD DBB GBD DB BL gBDDS sE তৎকালের ভাব প্ৰকাশ করিয়া একটী কবিতা লিখিয়াছিলাম ,য়েটি ভঁাহাব পত্নীৰ উক্তিতে h তাহা বোধ হৱ মািৰলাৱাঙ্কৰে ক্লিক অন্ত