পাতা:আত্মচরিত (৪র্থ সংস্করণ) - শিবনাথ শাস্ত্রী.pdf/৫৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


(to दिनांथ अंक्षीय खात्रांप्रुष्कादिङ, [ ২য় পবিঃ শ্রেণীতে র্তাহাব প্ৰণাত উপক্ৰমণিকা ধবাহষাছেন । আমবা উপক্ৰমণিকা অনুসাবে সংস্কৃত শিক্ষা আৰম্ভ কবিলাম। তৎপবে গ্রীষ্মেব ছুটতে বাড়ীতে আসিলে, আমাব প্ৰপি ৩ামহদেব শুনিলেন যে, আমি সংস্কৃত কলেজে ভৰ্ত্তি হইয়াছি ; তাহা শুনিষ আনন্দিত তইলেন। একদিন সন্ধ্যাব সময় আমাকে নিকটে বসাহিত্যা জিজ্ঞাসা কবিলেন, “বাবা { বাম শব্দেব ‘টা”-৩ে কি হত্য, বল “ত।” আমি বালকেৰ কণ্ঠস্বাবে চাৎকাব কবিয বলিলাম, “বাম শব্দেব আবাবা “টা” কি ?- বামটা ।” তখন তিনি বিবক্ত হইয৷ তােব দন্তবিহীন মুখেব ভাষাতে বলিলেন, “ঘোলাব ঘাস কাৎবে” অর্থাৎ, ঘোড়াবা ঘাস কাটুকে । “বাম শব্দেৰ তৃতাযাব একবচনে কি হয ?” বলিয়া জিজ্ঞাসা কবলে আমি বলিতে পাবিতাম “বামেণ” ; কিন্তু আমি ত মুগ্ধবোধ পড়ি নাই, কাজেই বাম শব্দেব “টা” যে কি, তাহা বুঝিতে পাবিলাম না । ইহা লইব| আমাৰ বাবাব সহিত প্ৰপিতামহদেবেব কথা হইল ; বাবা সমুদয কথা বুঝাইযা দিলেন । কিন্তু সংস্কৃত ব্যাকবণ পড়িতেছি না শুনি যা তিনি বড়হ দুঃখিত হাহলেন । বাবাব মুখে শুনিয়াছি, প্রপিতামহ মহাশয়েব সময়ে কলাপ ব্যাকবণ পড়িবাব বঁীতি ছিল, তদনুসাবে । তিনি যৌবনে কলাপ ব্যাকবণ পড়িয়াছিলেন । কিন্তু আমাব পিতা মহাশযেব পঠদ্দশাতে মুগ্ধবোধ ব্যাকৰণ পড়িবাব বাতি প্ৰবৰ্ত্তিত হইয়াছিল। তদনুসাবে প্ৰপিতামহ মহাশয় বোধ হয় মনে কবিয়াছিলেন যে আমি মুগ্ধবোধ পড়ি ; সেই জন্যই প্রশ্ন কবিয়াছিলেন, “বাম শব্দেব “ঢা’-তে কি হয় ?” মাতার উপর। প্ৰপিতামহের প্রভাব -প্ৰপিতামহদেব আমাব মাতােব মন্ত্রাদাতা গুরু ছিলেন । সুতরাং সময়ে অসময়ে মাতাকে ডাকিয়া, কোন স্থলে কিরূপ কৰ্ত্তব্য, সে বিষয়ে উপদেশ দিতেন। এই সকল উপদেশ আমাব মাতার অন্তবে এরূপ দৃঢ়বন্ধ হইয়া গিয়াছিল, যে তিনি সমগ্র জীবনে ঐ সকল উপদেশ হইতে এক পদও বিচলিত হন নাই বলিলে