পাতা:আদায়ের ইতিহাস - মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/২৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ইতিহাস R “খুব ব্যস্ত ছিলাম।” মণীশ আর কিছুই বলিল না। তার আগ্রহের অভাবে ত্ৰিষ্ট্রপও একটু আহত হইয়া চুপ করিয়া রহিল। খানিক পরে রাস্তায় নামিয়া হঠাৎ সে বলিল, “কুন্তলার যদি বিয়ে দেন-” ত্ৰিষ্টুপের দুই কান গরম হইয়া উঠিল। কথায় কথায় মণীশের কাছে কুন্তলার বিবাহ সম্পর্কে একটা প্ৰস্তাব উত্থাপন করিবে: ভাবিয়া রাখিয়াছিল, বিনা ভূমিকায় এমন ভাবে কথা তুলিবার কোন ইচ্ছা তার ছিল না। মণীশ জিজ্ঞাসু দৃষ্টিতে চাহিয়া রহিল। “কুন্তলার বিয়ে দেবেন না ? “দেবো বৈকি। বিয়ে না দিলে চলবে কেন ?” “আমাদের অফিসে একটী ছেলে আছে তার সঙ্গে চেষ্টা করতে পারেন। নরেশ নাম। ছেলেটি বেশ ভাল ; বাড়ীর অবস্থাও মন্দ नश । डां°नि योिं दव्लन-' মণীশ হাসিমুখে তার একটি হাত ধরিয়া বলিল, “কুন্তলার বিয়ের YY BDBB DDSDDD S DDB DDB DBLBDL DDB BDL DBDB D S আমি ছাড়া ওর জন্য কেউ ছেলে খুজে বার করতে পারবে না।” “এ ছেলেটি-” “খুব ভাল ছেলে। কিন্তু কুন্তলার সঙ্গে ওর যে বনবে তার ঠিক কি ? আমার কথা তুমি ঠিক বুঝতে পারনি, তিষ্ট। বাংলা দেশের সব চেয়ে ভাল পাত্রটির সঙ্গেও আমি কুন্তলার বিয়ে দেব না। এমন একটী ছেলে খুজে আনিব, যার সঙ্গে বিয়ে হলে কুন্তলা সুখী হবে। ছেলের অবস্থা কেমন, স্বাস্থ্য কেমন, চরিত্র কেমন, এ সব দেখার আগে আমি দেখব ছেলের প্রকৃতি কেমন, কুন্তলার সঙ্গে খাপ খাবে किना ? ত্ৰিষ্টুপ সায় দিয়া বলিল, পৃষ্ঠা সেটা দেখা দরকার বটে।” তাড়াতাড়ি কুন্তলার বিবাহ মিটাইয়া দিয়া নিজেকে বঁাচানোর জন্যই সে ভাল একটি ছেলের সন্ধান দিয়াছে, অথচ একটু বিবেচনা