পাতা:আদায়ের ইতিহাস - মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/৬০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


○ ア ऊ८ ভাবিলেও ত্ৰিষ্টপের মাথা বিম-ঝিম করে, গলা শুকাইয়া যায়। দাঁতে দাঁত কামড়াইয়া সে নির্জন ঘরে, জরাজীর্ণ ট্রামে বাসে, নিজের সঙ্গে লড়াই করে। না, এতে কোন দোষ নাই। তার উদ্দেশ্য তো খারাপ নয়, সে তো বিবাহ করিবে কুন্তলাকে। আর কোন উপায় যখন নাই, এ উপায়টি বর্জন করা কাপুরুষতা । শিশির নামে ত্ৰিষ্টপের একজন বন্ধু ছিল, পাড়াতেই বাড়ী। বাড়ীর সকলে দেশে গিয়াছে, বাড়ীটা খালি। শিশির কেবল বাড়ীতে থাকে, খায় মেসে । শিশিরের আপিস যাওয়ার সময়ে ত্ৰিষ্টুপ একদিন সদরের তালার চাবিটা চাহিয়া রাখিল ।

  • 6ंकन ?'
  • कांछ उछ ।”

আডিডা ?” শিশির হাসিতে হাসিতে আপিস চলিয়া গেল। দুপুরবেলা ত্রিষ্টপ গেল মণীশদের বাড়ী। মণীশও বাহিরে যাইতেছিল, ত্ৰিষ্টপের মুখ দেখিয়া সে জিজ্ঞাসা করিল, “তোমার জ্বর झटशCछ माकि डिछ्रे ?’ ত্ৰিষ্টপ হাসিবার চেষ্টা করিয়া বলিল, “না—সাবান দিয়েছি, তাই চুল উস্কো খুস্কো দেখাচ্ছে।” ‘চুল তোমার বেশ চকচক করছে, টেরি ভাঙ্গেনি। মুখ শুকনো দেখাচ্ছে। ছেলেবেলা থেকে তুমি বড় অভিমানী, বড় একগুয়ে न ? “ছিলাম একটু। এখন ভাল ছেলে হয়ে গেছি। কুন্তলাকে নিয়ে যেতে এসেছি মনিদা।” মণীশ এক মুহূৰ্ত্ত ইতস্ততঃ করে। প্ৰসন্ন শান্ত দৃষ্টিতেই সে ত্ৰিষ্টুপের মুখের দিকে চাহিয়া থাকে, কিন্তু চােখে তার একটু সময়ের জন্য কঠিন প্রশ্ন উকি দিয়া যায়। of Ve 1’