পাতা:আদায়ের ইতিহাস - মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/৬৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ইতিহাস ÑշV9 ‘छिल कि ७०ांश ? “আদায়ের যে ছক করেছিলেন সে বদলে ফেলি।” ‘ऊांड कि श्ऊ ? ‘দাদা রাজী হতেন। আপনি ঠিক করেছেন বড় হবেন। টাকা-পয়সা, মানসন্ত্রম, এসব নিয়ে যারা বড় হয়, দাদার কাছে তাদের কোন দাম নেই। আপনি একগুয়ে মানুষ, যা, ধরবেন তা’ ছাড়বেন না। একদিন মস্ত লোক হবেন, মোটর হাকাবেন, দেশ জুড়ে' খ্যাতি লাভ করবেন—এই আপনার প্রতিজ্ঞ। আপনার সঙ্গে আমার কখনও বিয়ে হয় ?” ‘কেন ?” “আমাদের ছক আলাদা । আমরা অন্য প্ৰতিজ্ঞা করেছি।-- জীবন দিয়ে কি আদায় করব ।” “কি আদায় করবে ?” “স্বাধীনতা ।” ত্ৰিষ্টুপ খানিকক্ষণ চুপ করিয়া থাকিয়া হঠাৎ বলিল ‘ও!” কুন্তলা ব্যগ্ৰভাবে বলিল, “বুঝতে পারছেন। আপনার সঙ্গে আমার বিয়ে কেন অসম্ভব ? আপনি যা’ চান, সে সব আদায় যারা করেছে, তারা হল এক জাত ; আর তাদের পায়ের নিচে যারা চ্যাপ্টা হয়ে মরছে, তারা হল আর জাত। আমরা ওই জাতের। বেজাতের হাতে দাদা কখনও বোনকে দিতে পারে ?” ‘কেরাণীরা তো তোমাদের স্বজাত ? তোমার দিদিকে তো কেরাণীর হাতে দেওয়া হয়েছে। আমিও কেরাণী ।” কুন্তলা আচল দিয়া মুখ মুছিল, তারপর হাসিল।—“কেরাণীর কোন জাত নেই। জামাইবাবু আমাদের জাতের লোক পেটের জন্য কেরাণীগিরি করছেন। জামাইবাবু দু’বছর পরে এই সেদিন ফিরেছেন, জানেন না ? ত্ৰিষ্টপ জানিত না। কিই বা সে জানিত ? उांकी त्रिकांद्र