প্রধান মেনু খুলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আদিশূকর [ প্ৰথম অঙ্ক । নক্ষত্রের মত উদ্দেশ্যহীন ছুটুছিস-সব হারিয়ে মায়ের অচল ধ’রে কঁাদছিস-তোর বিশ্রাম ? ছিঃ-ছিঃ-ছিঃ ! সন্ধ্যা হয়ে এলো, তাতে কি ? অন্ধকার? আলোক দেখিস নাই পুত্র; দেখবিই বা কিসে! তুই তো। তখন গর্ভবাসে। যদি সে আলোক দেখতিস, তা হ’লে দিবার সহস্ৰ দুৰ্য্যরশ্মি আজ তোর চক্ষে মেঘাচ্ছন্ন অমানিশা হতেও যন্ত্রণার হয়ে উঠতো। ও-হো-হাে, কি আর বলুবো,-ব’লে কি বোঝাবার! সায়নি। না মা ! আর বলতে হবে না ; আমি মৰ্ম্মে মৰ্ম্মে বুঝেছি। যদিও আমি তখন গর্ভবাসে, তা হ’লেও এই গর্ভে থেকেই আমাদের অভিমন্য বৃহপ্ৰবেশের কৌশল জেনে নিয়েছিল। আমার অনুভব-চক্ষু খুলে গেছে মা ! আমি স্পষ্ট দেখতে পাচ্ছি, আমার পিতামহ হৰ্ষবৰ্দ্ধনের যুদ্ধে শায়িত, আমার পিতা গুপ্তঘাতকহন্তে নিহত, আর তুমি-আমার মা-মালবেশ্বেরী, আমায় গৰ্ভমধ্যে লুকিয়ে নিয়ে বহু দূরে বিতাড়িত । চল মা !! আর বিশ্রাম নাই-মান অপমানের কান্না নাই-পাপ পুণ্যের বিচার নাই; চাই মালব, চাই উজ্জয়িনী, চাই আমার পূর্ব পুরুষগণের भूजा-मनिब्र। 5ण भां! e. অপরাজিতা । [ পুত্রবৎসল্যে একটু বিচলিত হইলেন, তাহার পুর্বের সে উচ্চম ভঙ্গ হইল, তিনি নীরবে ভাবিতে লাগিলেন]। नांबन। ७कि ! मैंज़िाम ब्रशेल 6य ! डांबूश कि ? অপরা। ভাবছি।--ভাবছি সায়ন ! তোর শুকনো মুখখানা,-ভাবছি ঐ অস্তোন্মুখ সুৰ্য্যের দিকে তোর সেই ঘন ঘন কাতর দৃষ্টি-ভাবছি তুই আমার কত আদরের, কত যত্নের, কত সাগরহেঁচা। ও-হো-হো --বাবা আমার! না-আর গিয়ে কাজ...নাই ; আজ এইখানেই বিশ্রাম করি আয় । আমি পাতিশোকে পাগল-আমি প্ৰতিহিংসায় অন্ধ-আমি মালবের আশায় রাক্ষসী-ওরে তবু আমি মা !