পাতা:আদিশূর ও বল্লালসেন.pdf/১২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আদিশূর ও বল্লাল সেন। & পরিমাণে ধনরত্ন প্রদান পূর্বক বিদায় করিয়া দিলেন। কাণু কুজাগত পঞ্চব্রাহ্মণের সহিত যে পঞ্চ ভূত্য আগমন করিয়াছিলেন, তাহারাও তাহাদিগের সহিত স্বদেশে গমন করিলেন : বঙ্গদেশ হইতে পঞ্চ ব্রাহ্মণ স্বদেশে প্রত্যাগত হইলে র্তাহারা বঙ্গাদিদেশে তীর্থ যাত্রা বিনা গমন করাতে এবং অযাজ্য যাজন হেতু সমাজে বর্জিত হইয়াছিলেন। জ্ঞাতিগণ র্তাহাদিগের পুনঃ সংস্কারের নিমিত্ত বারম্বার অনুরোধ করিতে লাগিলেন। তাহারা ঐ প্রকার সমাজে অপমানিত হইয়া পুনঃ সমাজে গৃহীত হইবার আশায় কিয়ংকাল অতিবাহিত করিয়াছিলেন। কিন্তু জ্ঞাতিগণ কর্তৃক অপমানিত । হইয়া স্বদেশে বাস করা অপেক্ষ দেশ পরিত্যাগ শ্রেয়ঃ, এই বিবেচনায় শ্ৰীহৰ্ষ, ভট্ট নারায়ণ প্রভৃতি পঞ্চ ব্রাহ্মণ এবং তাহাদিগের সহিত মকরন্দ ঘোষ প্রভৃতি পঞ্চ ভূত্য কাণুকুজ পরিত্যাগ করিয়া গৌরদেশে গমন করিলেন। এই প্রকারে ব্রাহ্মণগণ পুনরাগত হইলে আদিশূর র্তাহাদিগের প্রত্যেককে যথোচিত সৎকার করিয়া রাঢ়দেশে এক একখানি গ্রাম প্রদান পূর্বক বাসস্থান নির্দেশ করিয়া দিলেন। ব্রাহ্মণের সপ্তশতী সমাজ হইতে দীর পরিগ্রহ করিয়া আদিশূর দত্ত ভূসম্পত্তির

  • কাহার মতে আদিশূর কর্তৃক পঞ্চ ব্রাহ্মণের আনয়নের কারণ স্বতন্ত্র প্রকার -নির্ণত আছে। ক্ষিতীশ বংশাবলী চরিত মত রাজপ্রাসাদোপরি গুপ্তপাতবীপ অনিষ্ট শাস্তি মানসে শাকুন যজ্ঞ করণার্থ কাণুকুজ হইতে পঞ্চ ব্রাহ্মণ আনীত হইয়াছিলে। কেহ কহেন যে অদিশূর রাজমহিষী বঙ্গীয় ব্রাহ্মণগণকে স্বীয় ব্রত সম্পাদনে অসমর্থ দেখিয়া কাণুকুজ হইতে পঞ্চ ব্রাহ্মণ আনয়ন করেন । ফলতঃ দৈবেtৎপাত শান্তিমানসেই হউক অথবা যে কোন কারণেই ইউক পঞ্চ ব্রাহ্মণ যে যজ্ঞার্থ এ দেশে আনীত হইয়াছিলেন, তদ্বিষয়ে কাহারও মতান্তর নাই ।