পাতা:আদিশূর ও বল্লালসেন.pdf/২৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আদিশূর ও বল্লাল সেন । ১৭ উল্লেখ অনুসারে “ ক্ষত্ৰিয়বংশহংসঃ ” বিশেষণ দ্বারা আদিশূর ক্ষত্রিয় ছিলেন, এরূপ অর্থ করা যাইতে পারে, কিন্তু রাজেন্দ্র বাবু “ ক্ষত্ৰিয়বংশহংসঃ ” এই বিশেষণ মাত্র কুলজিগ্রন্থ হইতে উদ্ধৃত করিয়াছেন ; স্বতরাং “আদিশূরঃ” শব্দ উক্ত বিশেষণবাচক বাক্যের পূৰ্ব্বে অথবা পশ্চাতে কি ভাবে প্রযোজিত আছে তাহা কুলজি-উদ্ধত উক্ত বচন দ্বারা ঠিক হইতে পারে না । যদি আদিশূরের প্রতাপের উপমাস্থলে, অথবা “ সূর্য্যের ন্যায় তিনিও এক নৃপতিবংশের আদিপুরুষ এবং বংশপ্রবর্তয়িতা” এরূপ বর্ণনা স্থলে “ক্ষত্রিয়বংশহংসঃ’ বিশেষণ ব্যবহৃত হইয়া থাকে, তাহা হইলে উহা দ্বারা আদিশূরের ক্ষত্ৰিয়ত্ব কোন প্রকারে নির্ণীত হয় না । আদিশূর যে সময়ে গৌড়দেশে স্বীয় সাম্রাজ্য স্থাপন করেন, তৎকালে ভারতের অন্য কোন রাজ্যে অম্বষ্ঠ জাতীয় স্থপ্রসিদ্ধ কোন নরপতি বিদ্যমান ছিলেন না । এনিমিত্ত প্রবলপরাক্রান্ত বুদ্ধদিগের বিজেতা আদিশূরের গুণগ্রাম উল্লেখ সময়ে তাহাকে অন্যান্য রাজ্যের ক্ষত্রিয় নৃপতিদিগের সহিত তুলনা ভিন্ন গত্যন্তর ছিল না । বিশেষতঃ মহাবল পরাক্রান্ত রাজাদিগের প্রসাদ-লালসায় এতদেশীয় কবিগণ নুনাপ্রকার অত্যুক্তি করিয়া তাহাদিগের সামান্য যুদ্ধকার্যাকে দিগ্বিজয়, যৎসামান্য ইষ্টকালয়কে ইন্দ্রের অমরাপুরী, এবং তাহাদিগের সাধারণ কাৰ্য অসাধারণ অবদান বলিয়া বর্ণনা করিতেন । ইহাতে আদিশূর অম্বষ্ঠ জাতি হইয়াও তদানীন্তন ক্ষত্ৰিয় নৃপতিদিগের শ্রেষ্ঠ বর্ণিত হইবেন, বিচিত্রনহে। এবং এ প্রকার অনুমান করা অযৌক্তিকও হইতে পারে না । কিন্তু