পাতা:আদিশূর ও বল্লালসেন.pdf/৫৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


、戟峰 জদিশূর ও বল্লালসেন । গ্রন্থ নহে, বরং কতিপয় কুলপঞ্জিকা যে অতি প্রাচীন তৎসম্বন্ধে দ্বৈধ মত নাই। বীরেন্দ্র-শ্রেণী ব্রাহ্মণদিগের কুলপঞ্জিকা অতি প্রাচীন কাল হইতেই লিখিত হইয়া আসিতেছে, বৈদ্যদিগের কুলপঞ্জিকাও তদ্রুপ। দেবীবর কৃত কুলজিগ্রন্থ কোন সময়ে লিখিত হইয়াছিল তাহার নিশ্চয়ই নাই। কেহ কেহ অনুমান করেন,দেবীবর খৃষ্টীয় পঞ্চদশ শতাব্দীতে প্রাদুভূত হইয়াছিলেন। দেবীবর কৃত গ্রন্থ উক্ত সময়ে লিখিত ছইলেও পুরাতন কুলজিগ্রন্থ অবলম্বন করিয়াই লিখিত হইয়াছিল সন্দেহ নাই। অন্যথা চারি পাঁচ শত বৎসর পূর্বে আনীত “পঞ্চব্রাহ্মণের বংশাবলী, এবং সমগ্র ব্রাহ্মণদিগের সম্বন্ধাদি কিপ্রকারে নিশ্চিত রূপে লিখিত হইতে পারে । সমগ্র কুলজি গ্রন্থ আধুনিক হইলে, এবং কুলাচাৰ্য্যগণ নিশ্চয়রূপে সেনবংশীয়দিগের জাতি অবধারণ করিতে অক্ষম হইয়া থাকিলে, তাহারা আদিশূর ও বল্লালাদির বর্ণনা সময়ে তাহাদিগের প্রতি “অম্বষ্ঠ-কুল-নন্দনঃ,” “বৈদ্যকুলোদ্ভূতঃ” প্রভৃতি বিশেষণ কদাচই প্রয়োগ করিতেন না। যদি অনুমানের উপর নির্ভর করিয়াই লিখিতেন, তবে অদিশূরকে, ব্রাহ্মণ বলিলেও তৎকালে কাহার ও কোন আপত্তি হইত না। স্বজাতি-প্রিয়তা অথবা স্বজাতি-গৌরব সংবৰ্দ্ধণার্থে ইহাদিগকে ব্রাহ্মণ কুলোদ্ভূত অবাধে লিখিয়া যাইতে পারিতেন। সেনবংশ ধ্বংশ হওয়ার পর বঙ্গদেশে রাজ রাজবল্লভের সময় পর্য্যন্ত বৈদ্য জাতির মধ্যে প্রভূত ক্ষমতাবান ব্যক্তি জন্ম গ্রহণ করেন নাই। অতএব কোন বৈদ্য প্রধান