পাতা:আদিশূর ও বল্লালসেন.pdf/৫৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রমাণে ক্ষত্রিয়ের বাস থাকিত এবং স্বজা ৷ তীয় ভূপলিদিগের সিংহাসনাধিষ্ঠান হেতু ঐ সময়ে বঙ্গবাসী ক্ষত্রিম্বদিগের সবিশেষ উন্নতি হইত সন্দেহ নাই। কিন্তু বঙ্গবামী ক্ষত্রিয় দিগের বিগত গৌরবের কোন চিন্তু বিদ্যমাননাই, অথবা কোন গ্রন্থে তাহার উল্লেখ প্রাপ্ত হওয়া যায় না। অতএব সেনবংশীয়ের কদাচই ক্ষত্রিয় কুলোৎপন্ন বলিয়া প্রতীতি হয় নয়দি এরূপ তর্ক উপস্থিত করা হয়,যে আদিশূর ও বল্লাল ক্ষত্রিয় হইলেই যে অদ্য পৰ্য্যন্ত বহু ক্ষত্রিয়ের বাস বঙ্গদেশে থাকিবে তাহার নিশ্চয় কি ? কোন বিশেষ কারণ বশতঃ হয়ত বঙ্গদেশে ক্ষত্রিয় জাতির বিলোপ হইয়াছে, অথবা ক্ষত্রিয়ের এ দেশে বহুল পরিমাণে বাস করেন নাই! কিন্তু ইতিহাস কিম্বদন্তী প্রভৃতিতে ক্ষত্রিয় জাতির হঠাৎ বঙ্গদেশ হইতে বিলোপ অথবা অথবা উপনিবাস স্থাপনের কোন উল্লেখ নাই ; আদিশূর বঙ্গদেশ বিজয় করিয়া স্বীয় সাম্রাজ্য স্থাপন করিয়াছিলেন সত্য,কিন্তু তিনি ইংরেজ অথবা ফরাসিস দিগের ন্যায় বিজেতা ছিলেন না। তিনি বঙ্গদেশ হইতে ধনরত্ন লুণ্ঠন করিয়া ভিন্ন দেশে যাইয়া উপভোগ করিতেন না। আত্মীয় ও স্বজাতীয় বর্ণের সহিত বঙ্গদেশেই কালাতিপাত করিতেন। ভারতবর্ষে মুসলমান রাজত্ব পঞ্চশতবর্ষ মাত্র ব্যাপী হইয়াছিল, এই কাল মধ্যেই অসঙ্খ্য আফগানু মোগল, এবং পারসিকগণ এদেশে মাসিয়া অবস্থিতি করিয়াছেন । সেনবংশীয় ভূপালগণ চারি পাঁচশত বৎসর বঙ্গদেশের অধীশ্বর থাকিয়াও কি দশ সহস্ৰ ক্ষত্রিয় এদেশে তানয়ণ করিতে পারেন নাই! ফলতঃ সেন