পাতা:আমি অমল আধারে.pdf/১১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চব না ত" সে আর সবগুন দেখতে চায় না, সবগন পথিবীকে সবগ করে। নিবোধও হতে পারতো কিংবা এক প্রকৃষ্ট উন্মাদ, ঘামের কবোষ্ণ গতে, কিছটা নারীর মাংসে, কিছ পথিবীতে; অথবা আলোয় কিংবা অন্ধকারে, আলো-অন্ধকারে— মসণ দপণে এক বিকৃত সে মাখ দেখে দেখে উচ্চস্বরে গান গাইতো দরহ শনের আলো আর অন্ধকারে। এই পথ দিয়ে তব যেতে হবে আসতে হবে আর, সর্যের বিরক্তি নিয়ে, রাত্রির ছলনা। কালও পথিবী ঘরবে, পরশও, পরদিনও, রোজসময়ের বিশ্বসন্ত ভূমিতে। না আর সবগুন দেখতে চায় না সেই নিরন্ধ নায়ক কারণ সে মনে মনে জানে সে শধ্যে স্বনের কাঁড়নক। ১১