পাতা:আমি অমল আধারে.pdf/১২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অ সন্ত গা মণী চাঁদ সন্দেহের অবকাশ নেই। তুমি চাঁদ হাসো কাঁদো একই কথা, আকাশের এই ধন্সর সীমান্তটুকু অরক্ষিত থাক প্রান্তিক প্রহরে। পৃথিবীর অন্ধকার ঘরে তারও দুটি চোখ জবলেছিল। তব কতক্ষণ ! কতো নীচ সময়ের মন । ব.ক তার আকাশ যে সেওতো জানতো না নক্ষত্রের আলোকের কণা পেয়ে বুঝি ভেবেছিল অাঁধারের সষে এরা হবে ভয় কিবা তবে । কিন্তু হাওয়া এসে শধে তার কানে কানে বলেছে এমনি হয়, এর কোনো মানে জেনো না, চেয়ো না তুমি শধে মেনে নিও, মানতে হয়েছে তাকে চায় নি যদিও । সকরণে ক্ষুব্ধতায় তার হাসি-কান্না সব একাকার। অস্তগামী চাঁদ সহসা আদ্যশ্য হয় আকাশের পারে— ঢাকে সব পরে অন্ধকারে ।