পাতা:আমেরিকার নিগ্রো - রামনাথ বিশ্বাস.pdf/৬১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


- - - = । “উইলী ৫৭ বত্রিশ ডলার ভাড়া দিয়ে থাকার মত লােক লক্ষের মধ্যে দশজন পাওয়া যায় কিনা সন্দেহ। লেনা এত ভাড়া দিয়ে থাকার পক্ষপাতী ছিলেন তার কারণ ছিল।. তার রুমগুলিতে সূৰ্য্যালােক সকালে সন্ধ্যায় পাওয়া যেত। সূর্যালােকে তার শরীর বেশ ভাল থাকত। নিউইয়র্ক শহরের উপর খুব কম কমই আছে যে রুমে সকাল সন্ধ্যায় সূর্যের আলো পাওয়া যায়। | লেনা তার ব্যাংকার ভদ্রলােককে ফোনে ডাকলেন এবং কিছু ডলার পাঠিয়ে দেবার জন্য অনুরােধ করার পর বললেন, হ্যালাে বনী, বিকালের দিকে যদি একবার আস তবে বড়ই ভাল হয়। | গ্রীক ভলােক ঘড়ি ব্যবহার করতেন না। তিনি সময়ের গােলাম ছিলেন না সময় তার গােলাম ছিল, সেজন্যই তাকে বিকালে আসার কথা বলেছিলাে। গ্রীক ভদ্রলােক বিকালের দিকে লেনার বাড়িতে আসবেন জানিয়ে দিলেন। | সেদিন নিউইয়র্ক সহরে তাপমান যন্ত্রে একশত তিন ডিগ্রী উত্তাপ। যাদের ব্লাড প্রেসার তারাই পথে ঘাটে পড়ে মরছিল। সংবাদপত্রে বড় বড় অক্ষরে এই হতভাগ্যদের মৃত্যু সংবাদ প্রচার করছিল, কিন্তু সংবাদপত্র এই হতভাগ্যদের মৃত্যু যাতে না হয় তার কথা মােটেই বলছিল না। এসব যেন আনন্দ সংবাদ কিন্তু যারা পথে ঘাটে মরছিল, তারাই বুঝতে পারছিল মৃত্যু কাকে বলে। জিহবা আড়ষ্ট, উঠবার ক্ষমতা রহিত, জ্ঞান বর্তমান, জল পিপাসায় কাতর, স্মরণশক্তি কমে বিলোপ, হার্টে কঠোর বিটিং, হাত-পা ঠাণ্ডা এবং অসারতা, এর কতক্ষণ পরেই মৃত্যু। লেনা সংবাদপত্র পড়বার সময় মৃত্যু যন্ত্রণার কথাই ভাবছিলেন। | সন্ধ্যার পূর্বে গ্রীক ভদ্রলােক লেনার ঘরে প্রবেশ করেই কতকগুলি ডলারের নােট তাঁর শয্যার পাশে রেখে দিয়ে বলেন, আজকের গরমে