পাতা:আমেরিকার নিগ্রো - রামনাথ বিশ্বাস.pdf/৭৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


জুফে জুফ্রে ফরাসী দেশের একজন পুরান পাপী। অনেক চুরি ডাকাতির মূলে সে ছিল। তার একটি বিশেষ দোষ , ছিল । সে ছিল এক নম্বর কামুক। স্ত্রীলােককে কাম-নিবৃত্তির মেশিন বলেই মনে করত। শিশুর প্রতি স্নেহ, বৃদ্ধের প্রতি সম্মান, স্ত্রীলােকের প্রতি সহানুভূতি ছিল না। প্রথম মহাযুদ্ধের সময় সৈন্য দলে ভর্তি হতে বাধ্য হয়েছিল। অনেকেই মনে করেছিল জুফ্রে জাৰ্ম্মাণদের হত্যাকাজে এগিয়ে যাবে, কিন্তু, ১৯১৮ সালের শেষ দিকে জুফ্রে সৈন্যদল হতে অবসর গ্রহণ করার পর সমুদ্র পথে অনেক দেশ ভ্রমণ করে। অবশেষে সে আমেরিকাতে আসার পর ফিলাডেলফিয়ার এক ছােট্ট শহরে থাকার সময় একদিন এক নিগ্রোকে লিঞ্চ করতে দেখার পর মনে প্রচণ্ড আঘাত লাগে। যারা নিগ্রো লােকটিকে লিঞ্চ করছিল সে তাদের আক্রমণ করে এবং অনেক আমেরিকানকে আহত করে। জুফ্রে ভাবছিল এই দুষ্কৃতকারীদের আহত করার জন্য সরকার হতে পুরস্কার পাবে, কিন্তু পুরস্কার স্বরূপ সে পেয়েছিল তিন মাস কারাবাস। তখন থেকেই তার মনের পরিবর্তন হয় এবং নিগ্রোদের মুক্তির জন্য জীবনের বাকি সময় উৎসর্গ করে। | জুফ্রে একটি রুটীর দোকান করেছিল। সেই দোকান সে ইচ্ছা করেই করেছিল। দেখলে, যদি রুটির দোকান করে তবে নিগ্রোদের সঙ্গে কথা বলার সুযােগ পাবে এবং নিগ্রোদের দাসবৃতি সুলভ মনােভাব পরিবর্তন করতে পারবে। জুফ্রে যখন রুটির দোকানে কাজে ব্যস্ত থাকত তখন সে বেশী কথা বলত না। একদিন একটি যুবক তার কাছে একখানা রুটি চায় এবং রুটির পরিবর্তে কাজ করতে প্রস্তুত সে কথাও