প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/১১৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আষাঢ় ১২৮২ | চিত্তবিনোদিনী |


"-----------------Rs

নহে। ইংরাজী সাহিত্য ইতিবৃত্তের | পর্য্যালোচনা করিলেও প্রতীতি হইবে " | যে, ইংলঙেও সময়ে সময়ে এক এক| বিধ সাহিত্যের প্রাদুর্ভাব হইয়াছিল। খৃঃ ষোড়শ শতাব্দীর শেষ ভাগ এবং সপ্ত দশ শতাব্দীর প্রারম্ভে ইংরাজী নাট্যসাহিতোর বিশেষ প্রাচুর্য হইয়াছিল। প্রথম চার্লস এবং সাধারণতন্ত্রের সময়ে দিন দিন কত সহস্ৰ ক্ষুদ্র পুস্তিক জনমমাজে প্রকাশিত হইত। অষ্টাদশ শতাব্দীতে স্পেকু| টেটর, ট্যাটলার প্রভৃতি সাময়িক পত্রি কায় দেশীয় বিদ্যা বিভিন্নমূৰ্ত্তি ধারণ করিয়া জনসমাজকে শিক্ষা দিতে লাগিল । বর্তমান শতাব্দীকে ইংরাজী সাহিত্যের ঔপন্যাসিক কাল বলিলে অত্যুক্তি হয় না। যে যে সময়ে যে সাহিত্যের শ্রোত স্বাভাবিক ও সহজে প্রবাহিত হইয়াছে, সেই সেই সময়ে জনসমাজ সেই সাহিত্যের স্রোতে আপনাদিগের জ্ঞানতৃষ্ণু। নিবারণ করিয়াছে। শুধু তৃষ্ণামোচন করে নাই, তাহাতে সস্তরণ করিয়াছে, ও করিয়াছে। এই সমস্ত অনায়াসলন্ধ প্র| वाcश् ७६५भान श्ईग़ा -আজি ইংরাজ| সাহিত্যের বৃহৎনদ নৃত্য করিতে করিতে শতধা কেমন জ্ঞানসমুদ্রের অনন্তদেশে | প্রবাহিত হইতেছে। ইউরোপীয় অন্যান্য যাথার্থ প্রতিপাদিত করিয়া দেয়। বঙ্গসাহিত্যের প্রবাহ যে কিরূপে প্রবর্ধমান হইবে, এবং কোথায় বিচালিত SeeSAAAAAA SAAAAA AAAAA | যথেচ্ছ ক্রীড়া করিয়া সম্পূর্ণ সুখলাভ ৷ | জাতির সাহিত্য ইতিবৃত্তেও এই কথার | श्व, उांश कथनई अन्नभान कद्र शांग्र না। কিন্তু যে যে স্রোত আসিয়া ইহার সহিত মিলিত হইতেছে,আমরা সহর্ষচিত্তে । তাহার বারিরাশিতে সস্তরণ ও ক্রীড়া করিয়া অবশ্য পরিতোষ লাভ করিব। ঔপ ন্যাসিক স্রোতে যদি আমাদিগকে একদা ক্রীড়া করিতে ও নিমগ্ন হইতে হয়, আমাদিগের দেখা উচিত, এই স্রোতে কি কি অমূল্য নিধি লাভ করা যাইতে পারে। অত: এব র্যাহারা এই প্রবাহ প্রবর্ধমান করিতে সযত্ন ও কৃতকাৰ্য্য হইবেন, তাহারা বঙ্গসাহিত্যের শ্ৰীবৃদ্ধিকারী, ও আমাদিগের কৃতজ্ঞতার ভাজন। সমালোচ্য গ্রন্থের জন্মদাতা যে এই প্রবাহের বারিরাশি প্রবর্ধমান করিতে অনেক সহায়তা করিতে পরিবেন, আমাদিগের এরূপ বিলক্ষণ বিশ্বাস হইয়াছে। তিনি প্রথম উদ্যমেই দেখাইয়াছেন, যে তাহার এ বিষয়ে বিল- 1 ক্ষণ সামর্থ্য অাছে। সেই সামর্থ্য যথাবিধি নিয়োজিত করিতে পারিলেই অবশ্য কৃতাৰ্থ হইবেন । বাঙ্গলীর স্থির ও জড় জীবনে ঔপন্যাসিক প্রভাব পতিত হওয়া নিতান্ত আৰ শ্যক। আমরা যে প্রকার আলস্য সুখপ্রিয়, বিলাসী, নিজীব, নিস্তেজ, ও জড়বৎ স্বদেশ এবং গৃহমধ্যে আবদ্ধ । থাকিতে ভাল বাসি, এমত আর কোন জাতি নহে। এজন্য আমাদিগের জীবনে । কিছুই বৈচিত্র্য এবং রমণীয়তা উপলব্ধি হয় না। এ জীবন নিতাস্ত কবিত্বশূন্য! আমরা একভাবেই অহুদিন অত্যিাপিত | |