প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/১৪০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আষাঢ় ১২৮২ | মুছলমাণদিগের প্রসিদ্ধ ইতিহাসবেত্তা মিনহাজউদ্দীন তদীয় তবকাংনাসরী নামক গ্রন্থে লিথিয়াছেন যে লক্ষ্মণসেন অশীতি বর্ষ বয়ঃক্রম কালে ১২৭৩ খঃ | অন্ধে রাজ্যচ্যুত হয়েন। এবং তিনি ভূমিষ্ঠ হইয়াই ১৯২৩ খৃঃ অঙ্গে রাজ্যেশ্বর পদ লাভ করিয়াছিলেন । এই গ্রন্থখানি ১২৬৯ খৃঃ অন্ধে লিখিত হয়। মিনহাজউদ্দীন এদেশে আগমন পূর্বক এদেশের বিষয় বল্লালসেন ১০১৯ শকাব্দে (১০৯৭ খৃ অন্ধে) অর্থাৎ ১৯৫৩এগারশ তিল্পান্ন সম্বতে,পুত্রে ঠিযাগের একশত চুয়ান্ন বৎসর পরে দান সাগর নামক গ্রন্থ রচনা করেন।ঞ্চ উহাতে র্তাহার নামও গ্রন্থলিখনের সময় নিৰ্দ্ধারিত আছে, তদ্বারা তাহার সময় স্থির করা যাইতে পারে। পুত্রেষ্ঠিযাগের পরেই আদি শূরের পুত্র কুন্য জন্মে। কিছুকাল পরে আদিশূর অপুত্রক হয়েন। তৎকালে তিনি র্তাহার কন্যাকে পুত্রিকা করেন। ঐ পুত্রিকার পুত্র জন্মে। তাহার নাম ক্ষিতীশূর-ক্ষিতীশূব এক পক্ষে আদিশূরের দে\হত্র অপর পক্ষে পৌত্রস্থানীয় । সুতরাং লোকে ই স্থাকে আদিশূরের দৌহিত্র বলিয়া থাকেন। ক্ষিতিপূরের সপ্তম পুরুষে বল্লালসেন অতি প্রসিদ্ধ। ইনি বিশ্বকসেনের ক্ষেত্ৰজপুত্র ইহাও প্রসিদ্ধ আছে। যথা— বল্লালসেন । | ইনি বল্লানসেনের প্রপৌত্র। বল্লালসেন নিজে অবগত হইয়া ইতিহাস লেখেন।

  • নিখিলনৃপচক্রতিলক শ্ৰীবল্লালসেন

দেবেন। পূর্ণে শশি নবদশমিতশকাব্দে Tানসাগরেরচিত । } ל (אצ আদিশূরের বংশ ধ্বংস সেনবংশতাজা । । বিঘকসেনের ক্ষেত্ৰজপুত্র বল্লালসেন রাজা। ] আইন আকবরী গ্রন্থে লেখা আছে যে o ১৯২৩ খৃঃ অব্দে ২য় লক্ষ্মণসেন রাজসিংহাসনে অধিরোহণ করেন এবং১২-৩ অন্ধে বক্তিয়ার খিলীজী কর্তৃক রাজ্যচ্যুত হয়েন। ৪২ বৎসর রাজত্ব করেন। সুতরাং ইহাকে অপায়ু কহ যায় না। বরালের পুত্র লক্ষ্মণসেন ২০ বৎসরমাত্র রাজত্ব করেন । বিংশতিবর্ষ মধ্যে বল্লালদত্ত মৰ্য্যাদার বিশৃজ্বল ঘটবার সম্ভাবনা নাই । দশ বিশ বৎসরে সামাজিক বিপ্লব ঘটন কদাচ কোনকালে কোন দেশে ঘটে নাই। এসকল কাজ অতি মৃদুভাবে ক্রমশঃ ক্রমশঃ হইতে থাকে। স্থান কল্পে তিন চারি পুরুষের কাল গত করিতে না পারলে | ঘটে নাই, ইহা অনায়াসে নির্দেশ করা | যাইতে পারে। তিন পুরুষের জননের } সামান্য কাল ৭০ ৮০ বৎসর। এখন যদি বল্লালের কৌলিন্য মর্যাদা প্রদানের সময় । হইতে ৭০৷৮০ বৎসর পশ্চাদ্বত্তী হই, তাহা হইলে আমরা বল্লালের পুত্র লক্ষ্মণকে | কৌলীন্য সমীকরণ করিতে দেখিতে পাই না । কারণ তিনি বল্লালের পরে বিংশতি বর্ষ মধ্যে মানবলীলা সংবরণ করিয়া ছিলেন। বিশেষতঃ (১৬৪ পৃং শ্লোক দেখ) হলাযুদ্ধ চট্টোপাপাধ্যায় মহাশয় নিজ পরিচয় স্থলে লিখিয়াছেন যে মহারাজ লক্ষ্মণ হলাম্বুধের যৌবনকালে তাহাকে তদীয় সভাপণ্ডিতপদে, মধ্য বয়সে মন্ত্রীর