প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/১৪৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


* H S 98 আর্যাদর্শন। আষাঢ় ১২৮২ । নির্দেশ করিয়া গিয়াছেন। সে যাহা হউক যিনিষ্ট উল্লিখিত স্বত্রসমূহের প্রকৃত রচয়িতা হউন না কেন, সাংখ্যদর্শন যে নিরতিশয় প্রাচীন পদার্থ তাহা নিৰ্ব্বিবাদে সিদ্ধান্ত করা যাইতে পারে। কপিলগ্রণীত স্বত্র যেরূপ প্রাচীন, ইহার টাকা ভাষ্য প্র: ভৃতিও তদনুরূপ পুরাতন। এক্ষণে সাংখ্য দশনের যাবতীয় টকা দেখিতে পাওয়া যায় তন্মধ্যে সাংখ্যপ্রবচনভাষাই সৰ্ব্বাপেক্ষ উংকৃষ্ট ও নামোল্লেখযোগ্য। বিজ্ঞান প্রবচন যে কপিলস্থত্রের অধস্তন তাহাতে আর সন্দেহ নাই । এই সকল কারণে বিজ্ঞানভিক্ষুর মতই সমীচীন বলিয়া প্রতীয়মান হইতেছে। বিজ্ঞানভিক্ষুর মতে তত্তসার নামক গ্রন্থই সাংখ্যদর্শনের মূল গ্রন্থ। সাংখ্যপ্রবচন কেবল কপিলস্থত্রের নাম নহে, পতঞ্জস্ক্রিপ্রণীত যোগশাস্ত্রেরও | অন্যতম নাম সাংখ্যপ্রবচন। ইহা দ্বারা প্রতিপন্ন হইতেছে যে তত্ত্বসারই এই দর্শ । নের মূলগ্রন্থ। এই মূলগ্রন্থ অবলম্বনপূৰ্ব্বক ভিক্ষু নামক যতী এই ভায্যের রচয়িতা। | উভয় প্রকার প্রবচনই লিখিত হইয়াছে। ৰিজ্ঞানভিক্ষু সাংখ্যসার নামে এক খানি কপিলগ্রণীত সাংখ্যদর্শন নিরীশ্বর, উহাতে স্বতন্ত্র গ্রন্থও রচনা করিয়াছিলেন । কিন্তু ঈশ্বরের অস্তিত্ব অস্বীকৃত হইয়াছে ; আর সাংখ্যপ্রবচনখানি যে সাংখ্যদর্শনবিষয়ক । পতঞ্জলিগ্রণীত সাংখ্যদর্শন বা যোগশাস্ত্র मर्सअथम अश् कि मा छाश झ्शािख। नव । পতঞ্জলির মতে ঈশ্বরের অস্তিত্ব স্থির নিশ্চয় নাই । বরং সাংখ্যস্থত্রের মধ্যে অস্বীকার করা কপিল প্রণীত সাংখ্যশাস্ত্রের | স্থানে স্থানে অন্যান্য গ্রন্থ ও গ্রন্থকৰ্ত্তার নামোল্লেখ দেখিতে পাওয়া যায় বলিয়া ইহাই স্থিরসিদ্ধান্ত বলিয়া প্রতীয়মান হয় যে এই খানি মহর্ষি প্রণীত আদিগ্রন্থ নহে,ইহা রচিত হইবার পূৰ্ব্বে তত্ত্বসার প্রভূতি অন্যান্য কতিপয় গ্রন্থ বিরচিত হইয়াছিল। সাংখ্যপ্রবচনের মধ্যে পঞ্চশিখের নামোল্লেখ আছে, কিন্তু পঞ্চশিথ মহর্ষি কপিলের শিষ্য ছিলেন, অতএব সাংখ্যপ্রবচন, মহর্যিপ্রণীত মূলগ্রন্থ বলিয়া নির্দেশ করা কোন ক্রমেই যুক্তিসঙ্গত নহে। এতদ্ভিন্ন সাংখ্য প্রবচনভাষ্য এই সংজ্ঞাটাও পতঞ্জলিগ্র নীত যোগশাস্ত্রেরই প্রকৃত নাম; কপিল স্থত্রের এই নামে অভিধান কেবল অমু করণমাত্র বলিতে হইবে। সুতরাং প্রকৃত উদ্দেশ্য নহে, মহর্ষি কপিল কেবল বিচারমুখে ঈশ্বরের অস্তিত্ব লোপ করিয়াছেন এই মাত্র। পতঞ্জলির শিষ্যেরা | বলিয়া থাকেন যে যোগশাস্ত্র সাংখ্যের পরিশিষ্টস্বরূপ। পতঞ্জলি ঈশ্বরের অস্তিত্ব সংস্থাপনপূর্বক কেবল কপিলপ্রণীত শাস্ত্রের অভাব ও অঙ্গহীনতা নিরসন করি: ब्रां८छ्न । 驟 - - সূত্রের পর প্রধান গ্রন্থ সাংখ্যকারিকা । কারিকার রচয়িতা ঈশ্বরকৃষ্ণ। ঈশ্বরকৃষ্ণ নিজনিৰ্ম্মিত কারিকাবলীর অন্তঃস্থ কয়েকটী লের অমুশিষ্য আধুরির শিষ্য পঞ্চশিখ ও উtহার কতিপয় শিষ্যের নিকট শিক্ষক- | শ্লোকে লিখিয়াছেন,যে তিনি মহর্ষি কপি- । . يستضييييييييتي রিয়া সমস্ত সাংখ্যদর্শনের উদ্ধারসাধন | .*