প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/১৭৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


| ১৬৬ | নিজ জীবনের সৰ্ব্বোৎকৃষ্ট শুভ নিষ্কর্ষণ করিতে অমুমত হন। এতদিন চিন্তা, হৃদয়ভাব ও রচনা বিষয়ে যাহার সহিত সহভাগিল ছিল,এখন হইতে জীবনের স{ মস্ত ঘটনাতেই তাঁহার সহিত সম্বভাগিতা সংস্থাপিত হইল। কিন্তু সাৰ্দ্ধসপ্ত বৎসরকাল মাত্র তিনি এই স্বৰ্গসুখভোগ করিয়াছিলেন! শুদ্ধ সাৰ্দ্ধসপ্ত বৎসরকাল! এই রমণীরত্নের অকালমৃত্যুতে মিল যে কি ক্ষতি অনুভব করিয়াছিলেন তাহ অনুভবকরা বনবাসী হয়ে রব, মুধালে না কথা কব, মানবের মুখ আমি দেখিব না আর। মনেতে বড়ই ঘূণ হয়েছে আমার। হব রে যোগিনী আমি ত্যজিব সংসার! এ ছার জীবনে আর কি সাধ তাহার ? পতি যার মাসে বাসে, নাহি কথা নাহি হাসে, সে যে পরে ভাল বাদে, পরপরিবার। সে মুধু পরেরি তরে কাদে অনিবার। হব রে যোগিনী আমি ত্যজিব সংসার! আমার দুখের কথা নহে কহিবার । , কত তারে সাধিলাম, । - | :; কত তীরে বাধিলাম, | কত পায়ে কঁদিলাম, ভেবে আপনার। তবু সে দিনের তরে হলো না আমার } | হব রে যোগিনী আমি আৰ্য্যদর্শন। मानण्ड बड़ई इन शबाइ आशह। | গলা ধরে কেঁদে কব, পতির বাভার। বাঘিনীরো মনে আছে, দয়ার সঞ্চার।" {इर শ্রাবণ ১২৮২। 1 যায় কিন্তু বাক্ত করা যায়ন । বিবাহের পূর্বে ও পরে এই রমণীকুলশিরোমণি দ্বারা মিল যে উহার রচনা বিষয়ে কতদূর উপকৃত হইয়াছিলেন, এবং তাছার সাহচর্য্যে তিনি যে কত অতুল সুখের অধিকারী হইঙ্গলেন, তাহা তিনি স্বয়ংই ব্যক্ত করিঙে অক্ষম ছিলেন। তথাপি আমরা আগামী বারে যতদূর সাধ্য তাহার কিঞ্চিৎ বিবরণ প্রদান করিয়া পাঠকগণের তৃপ্তিবিধানের চেষ্টা করিব। | : יין קd হব রে যোগিনী অামি ত্যজিব সংসার । হব রে যোগিনী আমি স্ত্যজিব সংসার! কেন সে করিল আগে যতন আমার ! তাই সে র্তাহারি তরে, আজিও কাদি অন্তরে, সে স্কুপ স্বপন মনে, জাগে অনিবার। দর দর ছনয়নে বহে অশ্রুধার ! হব রে যোগিনী আমি ত্যজিব সংসার! পুরাব কাস্তার আমি কেঁদে একবার। । প্রাণভরে তারে ডাকি, কাদাব বনের পার্থী, . || দেখি পাখী কঁদে নাকি, ছখেতে আমার। } কেবল পাষাণ মন মানব সবার। | হবরে যোগিনী আমি ত্যজিব সংসার। ]

  • - ". . .

বনের বাসিনী হব, । বাঘিনীর সঙ্গে রব, ।